সুনামগঞ্জের দোয়ারায় অদ্ভুত লকডাউন

0
0

সুনামগঞ্জের দোয়ারাবাজার উপজেলার প্রত্যেকটি ইউনিয়নে জনসম্মুখ দেখে মনে হচ্ছে হাস্যকর লকডাউন । প্রথম লকডাউন সোমবার (৫ এপ্রিল) সকাল ১০টা থেকে বিকেল ৪ টা পর্যন্ত দেওয়া হয় করোনা ভাইরাসের টিকা।

লকডাউনের দ্বিতীয় দিন ও স্বাভাবিক ভাবে কেটে গেল, তৃতীয় দিন অন্যান্য দিনের তুলনায় মানুষ একটু বেশি দেখা যাচ্ছে হাট-বাজারে। বাড়ছে ক্রেতা-বিক্রেতা,রাস্তায় মানুষের উপস্থিতিও স্বাভাবিক দিনের চেয়ে খুব কম নয়।

এ চিত্র দেখে বিন্দুমাত্র বোঝার উপায় নেই যে দেশে লকডাউন শুরু হয়েছে । লকডাউনের নির্দেশনায় বলা হয়েছে, সন্ধ্যা ৬টা থেকে ভোর ৬টা পর্যন্ত অতি জরুরি প্রয়োজন ছাড়া কোনোভাবেই বাড়ির বাইরে বের হওয়া যাবে না।

কাঁচাবাজার এবং নিত্য প্রয়োজনীয় পণ্য সকাল ৮টা থেকে বিকেল ৪টা পর্যন্ত উন্মুক্ত স্থানে স্বাস্থ্যবিধি মেনে বেচা-কেনা করা যাবে।

লকডাউন কেমন চলছে তা সরাসরি দেখতে গিয়ে সকাল ৭টা থেকে ৯টা পর্যন্ত দেখা যায়, সুনামগঞ্জের দোয়ারাবাজার উপজেলার প্রত্যেকটি ইউনিয়নে রাস্তাঘাটে অসংখ্য মানুষের উপস্থিতি ।

কেন বের হয়েছেন জানতে চাইলে তাদের কেউ অফিস, কেউ বাজারে, কেউ রমজান মাসের সামগ্রী কিনতে আবার কেউবা লকডাউন কেমন চলছে তা দেখতে নানা প্রয়োজনের কথা বলেন।

তবে রাস্তাঘাটে অসংখ্য যানবাহন চলাচল মোটরসাইকেল ও রিকশা চলাচল করতে দেখা যায়। রাস্তায় আজও পথচারীদের অনেককে মাস্ক পরিধান না করেই ঘুরতে দেখা গেছে।