বেরিবাধ ভেঙ্গে হুমকির মুখে পাচঁশতাধিক পরিবার

0
6

কুড়িগ্রাম রাজারহাট প্রতিনিধি : কুড়িগ্রাম  জেলার রাজার হাট উপজেলার ঘড়িয়ালডাঙ্গা ইউনিয়নের বুড়িহাট এলাকায় গত কযেকদিনের টানা বৃষ্টি ও উজান থেকে নেমে আসা পাহাড়ি ঢলে প্রায় ২৪ বছর আগে নির্মিত ক্রোচবাধের একাংশ গতকাল অনুমানিক রাত ০৮:৩০ মিনিটের দিকে তিস্তার বুকে বিলীন হয়েছে।

এতে অনেক জায়গায় দেখা দিয়েছে নদী ভাঙ্গন। বিপাকে পরেছে ঘড়িয়ালডাঙ্গা ও বিদ্যানন্দ ইউনিয়নের প্রায় পাচঁশতাধিক পরিবার। হুমকিতে রয়েছে ঘড়বাড়ি, আবাদি জমি, মসজিদ, মন্দির, প্রাথমিক বিদ্যালয় সহ প্রধান মুন্ত্রির দেওয়া আশ্রয় প্রকল্পের (২৫)টি পরিবার। এব্যাপারে উপজেলা নির্বাহী অফিসার নুরে তাসনিম বলেন ইতিমধ্যে বন্যাকবলিত এলাকায় আমরা খাদ্য সমগ্রী বিতরণ করেছি। এদিকে ঘড়িয়াল ডাঙ্গা ইউনিয়ন পরিষদের চেয়ারম্যান আব্দুল কুদ্দুস প্রামানিক বন্যাকবলিতদের মাঝে চার বিতরণ শুরু করেছেন।

ক্রোচবাধ পরিদর্শনে এসে পনির উদ্দিন আহমেদ (সংসদ সদস্য) বলেন আমি নদী আমি কিছুদিন আগে তিস্তা নদীর পার দেখে গিয়েছি , কালকের ঘটনায় একটা বিপদ হয়েছে। এখানে একটি প্রকল্প করে দেওয়া হয়েছে পানি উন্নয়ন বোর্ড বলেছে পানি কমলেই আমরা কাজ মুরু করবো। আমি পানি উন্নয়ন বোর্ড কে বলেছি এখানে আপাতত একটা মেন্টেনেজ করা হোক। নদী ভাঙ্গনের স্থায়ী সমাধান নিয়ে তিনি বলেন, পানি উন্নয়ন বোর্ডের সচিবের সঙ্গে বেরিবাধের ব্যাপারে আমার কথা বলা আছে, ওনারা পানি শুকালেই কাজ শুরু করবেন। তিনি আরো জানান আমি ইউএনও এবং ডিসিকে বলবো পানিবন্দি মানুষকে শুকনো খাবার এবং অন্যান্য সকল সুবিধা দেওয়ার জন্য।