ব্রাহ্মণবাড়িয়ায় গ্যাস সরবরাহ বন্ধ। চরম ভোগান্তিতে গ্রাহকেরা।

0
1

গতকাল রবিবার (২৮ মার্চ) রাত ১১টা থেকে ব্রাহ্মণবাড়িয়ায় গ্যাস সরবরাহ বন্ধ রয়েছে। এতে করে চরম ভোগান্তির স্বীকার হচ্ছেন গ্রাহকেরা। উল্লেখ্য ব্রাহ্মণবাড়িয়া জেলায় বাখরাবাদ গ্যাস ডিস্ট্রিবিউশন কোম্পানি লিমিটেড কর্তৃপক্ষ গ্রাহকদের মাঝে পাইপের মাধ্যমে প্রাকৃতিক গ্যাস সরবরাহ করা হয়।

ব্রাহ্মণবাড়িয়া শহরের কান্দিপাড়া এলাকার এক গৃহবধূ জানান, গ্যাস না থাকার বিষয়টি রাত সাড়ে ১১টার দিকে টের পাওয়ায় রান্না করা হয়ে উঠেনি তার।

কাজীপাড়া এলাকার অন্য এক বাসিন্দা জানান, ‘রাত ১১টার দিকে আমার স্ত্রী খাবার গরম করার জন্য গ্যাসের চুলায় আগুন ধরাতে গিয়ে দেখেন গ্যাস নেই। ফলে খাবার গরম করতে পারেননি। গ্যাস না থাকায় আমাদের অনেক সমস্যা হচ্ছে।’

এদিকে গ্যাস না থাকায় আজ সকাল (২৯ মার্চ) থেকে লম্বা লাইন পড়েছে খাবার হোটেলগুলোতে। সবার চাহিদা মেটাতে না পারায় ব্যাপক অসন্তোষ দেখা দিয়েছে জনসাধারণের মাঝে। শহরের পুনিয়াউট এলাকার এক হোটেল মালিক বলেন, হঠাৎ এরকম পরিস্থিতি তৈরি হওয়ায় আমরা হিমশিম খেয়ে যাচ্ছি সময়মতো সবার চাহিদা মেটাতে কিন্তু অনেকেই এই সমস্যা বুঝতে না পেরে তড়িঘড়ি করছেন এতে করে বাকিরা পড়ছেন ভোগান্তিতে।

এ ব্যাপারে জানতে চাইলে বাখরাবাদ গ্যাস ডিস্ট্রিবিউশন কোম্পানি লিমিটেড ব্রাহ্মণবাড়িয়ার উপ-মহাব্যবস্থাপক প্রকৌশলী মো. রবিউল হক বলেন, যান্ত্রিক ত্রুটির কারণে গ্যাস সরবরাহ আপাতত বন্ধ রয়েছে। কখন গ্যাস সরবরাহ শুরু হবে, সে বিষয়ে এখনো কিছুই বলা যাচ্ছে না।

উল্লেখ্য, গতকাল (২৮ মার্চ) দুপুরের পর হেফাজত কর্মীরা ব্রাহ্মণবাড়িয়ার বিরাসার এলাকায় অবস্থিত গ্যাসফিল্ডে ব্যাপক ভাঙচুর ও অগ্নিসংযোগ চালায়। হামলার এক পর্যায়ে গ্যাস ফিল্ডের গ্যাস সঞ্চালনা ব্যবস্থাপনার সার্ভার নষ্ট করে দেয় সারাদিন গ্যাস সরবরাহ স্বাভাবিক থাকলেও রাত ১১টার দিকে গ্যাসের পাইপলাইন লিক করে বড় সমস্যা তৈরি হয় এতে করে সমস্যায় পড়ে জনসাধারণ।