রাঙ্গামাটিতে ছাত্রলীগ নেতা কায়সারের সহযোগীতায় বিরল প্রজাতির সাম্ভা হরিণ উদ্ধার

0
0

আরিফুল ইসলাম,রাঙ্গামাটি,পার্বত্য রাঙামাটি জেলা ছাত্রলীগের সহ-সম্পাদক আনোয়ার হোসেন কায়সারের সহযোগীতায় জুরাছড়ি উপজেলার দূর্গম পাহাড়ী অঞ্চল বারুদখোলা গ্রাম থেকে ২/৩ মাস বয়সী একটি বিরল প্রজাতির সাম্ভা হরিণের বাচ্চা উদ্ধার করেছে পার্বত্য চট্টগ্রাম দক্ষিণ বনবিভাগ।

রাঙ্গামাটিতে ছাত্রলীগ নেতা কায়সারের সহযোগীতায় বিরল প্রজাতির সাম্ভা হরিণ উদ্ধার
রাঙ্গামাটিতে ছাত্রলীগ নেতা কায়সারের সহযোগীতায় বিরল প্রজাতির সাম্ভা হরিণ উদ্ধার

সোমবার সকাল ১১টার দিকে জুরাছড়ির বারুদখোলা গ্রামে হরিণের বাচ্চা আটকের বিষয়টি খবর পেয়ে পার্বত্য চট্টগ্রাম দক্ষিণ বনবিভাগের বিভাগীয় বনকর্মকর্তা মোঃ রফিকুজ্জামান শাহ এর নির্দেশে রাঙ্গামাটি সুবলং রেঞ্জ থেকে বনবিভাগের একটি টিম আহত হরিণের বাচ্চাটি উদ্ধার করে বিকেল সাড়ে তিনটার দিকে রাঙ্গামাটি বনবিভাগ অফিসে নিয়ে আসে।

 

এসময় পার্বত্য চট্টগ্রাম দক্ষিণ বনবিভাগের বিভাগীয় বনকর্মকর্তা মোঃ রফিকুজ্জামান শাহ বলেন, জুরাছড়ি উপজেলার দূর্গম এলাকা থেকে আমরা বিরল প্রজাতির একটি সাম্ভা হরিণের বাচ্চা উদ্ধার করেছি। এটাকে প্রাথমিকভাবে চট্টগ্রামে চিকিৎসাসেবা প্রদান শেষে ঢাকায় বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিব সাফারী পার্কে হস্তান্তর করা হবে।

 

তিনি জানান, পার্বত্য চট্টগ্রামে এখনো বিরল প্রজাতির বেশ কিছু প্রাণী রয়েছে তাদের সংরক্ষণের বিষয়ে সরকারের কাছে বনবিভাগের পক্ষ থেকে বেশ কিছু প্রকল্প পাঠানো হয়েছে। এসব প্রকল্প অনুমোদন হওয়ার পর তা বাস্তবায়নে বনবিভাগ উদ্যোগ নেবে। এসব প্রকল্প বাস্তবায়ন করা গেলে পাহাড়ে জীববৈচিত্র ও পরিবেশ রক্ষায় গুরুত্বপূর্ণ ভূমিকা রাখবে বলে তিনি আশাবাদ ব্যক্ত করেন।

 

এসময় রাঙ্গামাটি বন সংরক্ষক সুবেদার ইসলাম, পার্বত্য চট্টগ্রাম দক্ষিণ বনবিভাগে এসিএফ গঙ্গা প্রসাদ চাকমা, রাঙ্গামাটি সুবলং রেঞ্জ কর্মকর্তা মোঃ তৌহিদুর রহমানসহ বনবিভাগের অন্যান্য কর্মকর্তারা উপস্থিত ছিলেন।