বায়েজিদে ইমন খুনের মামলায় ছাত্রলীগ নেতাকে ফাঁসানোর অভিযোগ

0
2

দেবাশিষ গোলদার,সীতাকুন্ড প্রতিনিধি,চট্রগ্রাম:  নগরীর বায়েজিদে আরেফিন নগর এলাকায় ছাত্রলীগ নেতা ইমন হত্যার ঘটনায় দায়ের হওয়া মামলায় নগর ছাত্রলীগের এক নেতাকে ফাঁসানোর অভিযোগ উঠেছে। বায়েজিদে ইমন খুনের মামলায় ছাত্রলীগ নেতাকে ফাঁসানোর অভিযোগ

গতকাল রোববার দুপুরে চট্টগ্রাম প্রেসক্লাবের এস রহমান হলে সংবাদ সম্মেলন করে নগর ছাত্রলীগের কার্যনির্বাহী সদস্য নূরুল হক মনিকে ষড়যন্ত্রমূলকভাবে ফাঁসানোর অভিযোগ করেছেন চট্টগ্রাম পলিটেকনিক ইনস্টিটিউট (চপই) ছাত্রলীগ। সংবাদ সম্মেলনে লিখিত বক্তব্য পাঠ করেন চপই ছাত্রলীগের সভাপতি ইকরামুল কবির।

এসময় সাংবাদিকদের বিভিন্ন প্রশ্নের উত্তর দেন সাধারণ সম্পাদক শওকত ওসমান সজীব। লিখিত বক্তব্যে উল্লেখ করা হয়, ‘বায়েজিদের আরেফিন নগর এলাকায় বাস্তুহারা লীগ নেতা আব্দুল নবী লেদু গ্রুপের সঙ্গে শফি গ্রুপের দ্বন্দ্ব রয়েছে।

লেদু বাহিনীর সেকেন্ড ইন কমান্ড হত্যা, ধর্ষণসহ ১৯ মামলার আসামি সোর্স আনোয়ার সম্প্রতি জেল থেকে জামিনে বেরিয়ে আধিপত্য বিস্তার শুরু করে। ওই দুটি সন্ত্রাসী বাহিনীর মধ্যে আধিপত্য বিস্তার নিয়ে পাগলা মাসুদ, ইমরান, তানভীর ও পিস্তল সোহেলের মধ্যে কয়েকবার সংঘর্ষের ঘটনা ঘটে। তন্মধ্যে গত ৪ মার্চ আরেফিন নগরে দুই পক্ষে সংঘর্ষ হয়।

ওই সংঘর্ষের পর পিস্তল সোহেল গ্রুপের জুনিয়র গ্যাং লিডার ইমনকে লেদু গ্রুপে যোগ দিতে চাপ সৃষ্টি করে রিপন, মামুন ও আলিফ। এতে ইমন রাজি না হওয়ায় ৭ মার্চ প্রকাশ্যে লেদু বাহিনীর ক্যাডাররা ইমনকে হত্যা করে। ওই হত্যাকাণ্ডের ঘটনায় চপই ছাত্রলীগের সাবেক সাধারণ সম্পাদক নূরুল হক মনির কোনোভাবেই জড়িত নয়। ঘটনার সময় মনি এলাকাতেও ছিলেন না। এলাকার একটি কুচক্রিমহল মনিকে বঙ্গবন্ধুর আর্দশের রাজনীতি থেকে দূরে সরিয়ে দিতে ষড়যন্ত্রমূলকভাবে ওই মামলায় আসামি করেছেন।’

আগামী ১৮ মার্চের মধ্যে নূরুল হক মনির বিরুদ্ধে ‘মিথ্যা’ মামলা প্রত্যাহার করা না হলে নতুন করে কর্মসূচি দেওয়া হবে বলে জানায় চপই ছাত্রলীগ।