প্রাকৃতিক ঐতিহ্য সংরক্ষণের দাবি

0
3

মোঃ শাহাদত হোসাইন, মাগুরা জেলা প্রতিনিধি।

মাগুরা জেলার মহম্মদপুর উপজেলার বিনোদপুর ইউনিয়নের ঐতিহ্যবাহী ঘুল্লিয়া গ্রাম।
এ গ্রামের ঐতিহ্যের মধ্যে একটি বাংলাদেশের সবচেয়ে বড় কয়েকটি বটবৃক্ষের মধ্যে একটি এ গ্রামে অবস্থিত।
স্থানীয় সূত্রে জানা যায় এ বটগাছ টি প্রায় ১০০ শতাংশ (১ একর) জায়গা জুড়ে রয়েছে।
এবং এ গাছটির উৎপত্তি কোথা থেকে বা কবে থেকে সেটা অনুমান করাও কষ্টসাধ্য।

কিন্তু কালের বিবর্তনে সংরক্ষণের অভাবে এ সম্পদটি এখন অরক্ষিত অবস্থায় আছে। ঘুল্লিয়া গ্রামের যে বাজার টি রয়েছে সেটিও এই বটগাছের নিচে। দুপুরে কাঠফাটা রোদে গ্রামের মানুষ তথা পথচারীরা একটু এই বটগাছের নিচে বসে প্রাশান্তির বাতাসে শরীর ঠান্ডা করেন।

এই বটগাছের নিচেই রয়েছে ঘুল্লিয়া সরকারি প্রাথমিক বিদ্যালয়, ঘুল্লিয়া সার্বজনীন কালী মন্দির।
মাঝে মাঝেই এ গাছের ডাল ঝড়ে ভেঙে পড়ে শুধু মাত্র সংরক্ষণের অভাবে।

স্থানীয়দের দাবি তাদরে এ সম্পদটি সরকার কতৃক সংরক্ষণ করে একটা দর্শনীয় স্থান হিসেবে গড়ে তুলুক। তারা মহম্মদপুর উপজেলা প্রশাসনের নিকট এ দাবি জানিয়েছেন।

আরও জানা যায় গ্রামের একমাত্র সমাজ সেবা মূলক সংগঠন “আলোকিত ঘুল্লিয়া সমাজ কল্যাণ সংগঠন” এর পক্ষ থেকে এ সম্পদটি সংরক্ষণের ব্যাপারে উদ্যেগ গ্রহণ করা হচ্ছে।