করোনার মরনকামড়ে না ফেরার দেশে মিতা হক

0
4

সময়ের পাতা:  ইন্দ্রমোহন রাজবংশীর পর করোনা এবার কেড়ে নিলো রবীন্দ্রসংগীতশিল্পী মিতা হকের প্রাণ। আজ রোববার সকাল সাড়ে ৬টার দিকে রাজধানীর একটি হাসপাতালে করোনা পরবর্তী জটিলতা নিয়ে চিকিৎসাধীন অবস্থায় না ফেরার দেশে পাড়ি জমান তিনি (ইন্না লিল্লাহি ওয়া ইন্না ইলাইহি রাজিউন)। করোনার মরনকামড়ে না ফেরার দেশে মিতা হক

গত কিছুদিন আগে করোনায় আক্রান্ত হয়ে চিকিৎসাধীন ছিলেন তিনি। তবে তিন-চারদিন আগে করোনা পরিক্ষা করা হলে সেখানে নেগেটিভ হয়েছিলেন তিনি। আজ বেলা ১১টায় সর্বস্তরের মানুষের শেষ শ্রদ্ধা জানানোর জন্য তাঁর মরদেহ ছায়ানটে নেওয়া হবে। পরে তাঁকে দাফন করা হবে কেরানীগঞ্জে।

তাঁর জামাতা জানান, করোনাভাইরাসে আক্রান্ত হলে মিতা হককে হাসপাতালে ভর্তি করা হয়েছিলো কিছুদিন আগে। তবে চার দিন আগে তাঁর করোনা নেগেটিভ এলে বাসায় নেওয়া হয়। হঠাৎ করোনা পরবর্তী জটিলতায় অসুস্থ হয়ে পড়লে আবার তাঁকে হাসপাতালে ভর্তি করা হয়। উল্লেখ্য, মিতা হক পাঁচ বছর ধরে কিডনি সংক্রান্ত নানা জটিলতায় ভুগছিলেন।

নিয়মিত ডায়ালাইসিস নিয়ে অনেকটা ভালোও ছিলেন তিনি। কিন্তু এবার করোনায় আক্রান্ত হয়ে মানসিক ও শারীরিকভাবে কিছুটা দুর্বল হয়ে পড়েন। মিতা হকের জন্ম ১৯৬২ সালের সেপ্টেম্বরে ঢাকায়। তিনি প্রয়াত প্রখ্যাত অভিনেতা খালেদ খানের স্ত্রী।

তাঁর চাচা দেশের সাংস্কৃতিক আন্দোলনের অগ্রপথিক ও রবীন্দ্র গবেষক ওয়াহিদুল হক।