দেশে করোনায় মৃত্যু সাড়ে ১৪ হাজার ছাড়িয়েছে

0
16

নিজস্ব প্রতিবেদক: দেশে করোনায় মঙ্গলবার সকাল ৮টা থেকে বুধবার সকাল ৮টা পর্যন্ত মারা গেছেন ১১৫ জন। নতুন মৃত্যুদের নিয়ে দেশে এ পর্যন্ত করোনায় মৃত্যু হয়েছে ১৪ হাজার ৫০৩ জনের।

এর মধ্যে ঢাকা বিভাগে ৭ হাজার ৫৭৯ জন, চট্রগ্রামে বিভাগে ২ হাজার ৭৫০ জন, রাজশাহী বিভাগে ১ হাজার ৩৪ জন, খুলনা বিভাগে ১ হাজার ২৬৫ জন, বরিশাল বিভাগে ৪২৩ জন, সিলেট বিভাগে ৫২৭ জন, রংপুর বিভাগে ৬০৮ জন, ময়মনসিংহ বিভাগে ৩১৭ জন করোনায় আক্রান্ত হয়ে এ পর্যন্ত মারা গেছেন।

এদিকে দেশে গতকাল টানা চার দিন করোনার শতাধিক মানুষের মৃত্যু হয়েছে। এ সময় করোনা শনাক্ত হয়েছে ৮ হাজার ৮২২ জনের। গত বছরের ৮ মার্চ দেশে প্রথম করোনা ধরা পড়ার পর থেকে এখন পর্যন্ত এটাই ২৪ ঘণ্টায় সর্বোচ্চসংখ্যক রোগী শনাক্তের রেকর্ড। স্বাস্থ্য অধিদপ্তরের সংবাদ বিজ্ঞপ্তিতে করোনা পরিস্থিতির এসব তথ্য জানা গেছে।

লকডাউনে বাইরে বের হতে পারবেন যারা

করোনা নতুন শনাক্তদের নিয়ে দেশে এ পর্যন্ত করোনা সংক্রমিত শনাক্ত রোগীর সংখ্যা দাঁড়িয়েছে ৯ লাখ ১৩ হাজার ২৫৮। এর মধ্যে সুস্থ হয়েছেন ৮ লাখ ১৬ হাজার ২৫০ জন। সর্বশেষ ২৪ ঘণ্টায় সুস্থ হয়েছেন ৪ হাজার ৫৫০ জন।

গত বছরের ৮ মার্চ দেশে প্রথম করোনা সংক্রমণ শনাক্ত হয়। পরে ধীরে ধীরে বাড়তে থাকে সংক্রমণ। গত বছরের শেষ দিকে এসে সংক্রমণ কমতে থাকে। এরপর এ বছরের মার্চ থেকে নতুন করে করোনা সংক্রমণ ও মৃত্যু বাড়তে থাকায় টানা বিধিনিষেধ চলছে।

অন্যদিকে করোনা পরিস্থিতি দেশে উদ্বেগজনক হওয়ায় গত ২২ জুন থেকে ঢাকাকে সারা দেশ থেকে অনেকটা বিচ্ছিন্ন রাখার সিদ্ধান্ত নেয় সরকার। এ জন্য ঢাকার আশপাশের চারটি জেলাসহ মোট সাতটি জেলায় জরুরি সেবা ছাড়া সব ধরনের চলাচল ও কার্যক্রম ৩০ জুন মধ্যরাত পর্যন্ত বন্ধ ঘোষণা করা হয়েছিল।

তবে করোনা সংক্রমণ বাড়তে থাকায় গত সোমবার সকাল থেকে সারা দেশে সব গণপরিবহন ও মার্কেট-শপিং মল বন্ধ করা হয়েছে। আর আজ থেকে সর্বাত্মক লকডাউন শুরু হয়েছে। এসময় সব সরকারি-বেসরকারি অফিসও বন্ধ থাকবে।