স্বাস্থ্যবিধি মেনে ঊষার কুইজ প্রতিযোগিতার সনদপত্র বিতরণ

0
1

বিশেষ প্রতিনিধি: মহান স্বাধীনতার সুবর্ণজয়ন্তী এবং মুজিবশতবর্ষ উপলক্ষে ইউনিভার্সিটি স্টুডেন্টস এসোসিয়েশন অব হবিগঞ্জ (ঊষা) এর কর্তৃক আয়োজিত অনলাইন কুইজ প্রতিযোগিতা-২০২১ এর বিজয়ীদের বাসায় গিয়ে গত সোমবার (২৬শে এপ্রিল) সন্ধ্যায় সনদপত্র বিতরণ করা হয়েছে।

 

স্বাস্থ্যবিধি মেনে ঊষার কুইজ প্রতিযোগিতার সনদপত্র বিতরণ
স্বাস্থ্যবিধি মেনে ঊষার কুইজ প্রতিযোগিতার সনদপত্র বিতরণ

সংগঠনটির সভাপতি মোঃ ওয়ায়েছ আহমেদ ও সাধারণ সম্পাদক মোশতাক আহমেদ শাকিল এর নির্দেশনা মোতাবেক স্বাস্থ্য বিধি মেনে বিজয়ীদের হাতে তাদের সনদপত্র নিজ হাতে পৌঁছে দেন অনুষ্ঠানটির প্রধান সমন্বয়ক ও ঊষার যুগ্ম সাধারণ সম্পাদক ইফতেখার আহমেদ রানা।

 

 

অনুষ্ঠানটির অন্যান্য সমন্বয়কারীরা হলেন, ঊষার সহ-সভাপতি রওনাক আলভী রাইসা যিনি জাহাঙ্গীরনগর বিশ্ববিদ্যালয়ের অর্থনীতি বিভাগের শিক্ষার্থী ও সাংগঠনিক সম্পাদক আশরাফুল আমিন যিনি রাজশাহী বিশ্ববিদ্যালয়ের ভাষাবিজ্ঞান বিভাগের শিক্ষার্থী।

 

 

উল্লেখ্য, গত ৩১শে মার্চ (বুধবার) সন্ধ্যা ০৭ ঘটিকায় প্রতিযোগিতাটি দুটি গ্রুপে সম্মিলিতভাবে আয়োজিত হয়। গ্রুপ-ক তে ছিলো ষষ্ঠ থেকে দশম শ্রেণির শিক্ষার্থীরা এবং গ্রুপ-খ তে ছিলো একাদশ থেকে স্নাতক পর্যায়ের শিক্ষার্থীরা। পরীক্ষার বিষয় ছিলো বাংলাদেশের মহান স্বাধীনতা এবং জাতির জনক বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমান সম্পর্কিত নানান প্রশ্ন।

 

 

প্রতিযোগিতায় অংশগ্রহণ করে ১ম স্থান অর্জন করেন সিলেট ইঞ্জিনিয়ারিং কলেজ এর তড়িৎ ও ইলেকট্রনিকস প্রকৌশল বিভাগের শিক্ষার্থী শর্মিলা আক্তার রাখি, ২য় স্থান অর্জন করেন শায়েস্তাগঞ্জ ডিগ্রী কলেজের একাদশ শ্রেণির শিক্ষার্থী মোঃ মাহমুদুল হাসান শাওন, ৩য় স্থান অর্জন করেন হবিগঞ্জ দারুচ্ছুন্নাত কামিল মাদরাসার নবম শ্রেণির শিক্ষার্থী ফাতেমা আক্তার ফাহমিদা।

 

 

প্রতিযোগিতায় ১ম স্থান অর্জনকারী শর্মিলা আক্তার রাখি বলেন, ‘এটি একটি সময়োপযোগী উদ্যোগ। বাঙালির স্বাধীনতা এবং এর কর্ণধার বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমান কে নতুন প্রজন্মের কাছে তুলে ধরার একটি অনন্য প্রয়াস। এই প্রতিযোগিতায় অংশগ্রহণ করে আমি সত্যি আনন্দিত।’

 

২য় স্থান অর্জনকারী মাহমুদুল হাসান বলেন, ‘ঊষা কর্তৃক আয়োজিত অনলাইন কুইজে অংশগ্রহণ করতে পেরে আমি অত্যন্ত আনন্দিত। মুক্তিযুদ্ধের চেতনা বঙ্গবন্ধু সম্পর্কে নতুন প্রজন্মর কাছে তুলে ধরতে; এরকম প্রতিযোগিতার আয়োজক কমিটির সবাইকে আন্তরিক ধন্যবাদ। ঊষার পদযাত্রা আরোও সমৃদ্ধ হোক ও ঊষার আলো ছড়িয়ে পড়ুক সমাজের প্রতি স্তরে।’

 

 

৩য় স্থান অর্জনকারী ফাতেমা আক্তার ফাহমিদা বলেন, ‘ “ঊষা” কর্তৃক আয়োজিত কুইজ প্রতিযোগিতার জন্য “ঊষা” কে অনেক অনেক ধন্যবাদ। করোনা পরিস্থিতি ও বিভিন্ন ধরনের জটিলতা উপেক্ষা করে এই ধরনের একটি প্রতিযোগিতার আয়োজন করার জন্য আপনাদের প্রতি কৃতজ্ঞতা স্বীকার করছি। ঊষা’র জন্য শুভকামনা রইলো।’

 

 

অনুষ্ঠানটির আহবায়ক ও প্রধান সমন্বয়ক ইফতেখার আহমেদ রানা বলেন, ‘স্বাধীনতার সুবর্ণজয়ন্তী এবং মুজিববর্ষ উপলক্ষে অনলাইন কুইজ প্রতিযোগিতার আয়োজন করতে পেরে আমি সত্যি আনন্দিত। কারণ, এ ধরনের উদ্যোগের মাধ্যমে হবিগঞ্জ জেলার সর্বস্তরের শিক্ষার্থীদের মধ্যে শিক্ষার প্রসার হবে। পাশাপাশি দেশ ও দেশের ইতিহাস সম্পর্কে জানতে শিক্ষার্থীদের উদ্বুদ্ধ করবে বলে আমি আশা করি। খোয়াই নদীর তীরে যখন হেঁটে হেঁটে সনদ দিতে যাই তখন নদীর তীরে চাঁদ দেখেছিলাম সেই চাঁদকে ঊষার আলো ভেবেই সামনে আগানোর পরিকল্পনা। প্রত্যাশা থাকবে সকলে হবিগঞ্জে ঊষার আলো ছড়াতে আমাদের সার্বিক সহযোগিতা করবেন।’

 

 

তিনি আরো বলেন, ‘ঊষা আমার হবিগঞ্জে আলো ছড়াবে, আর ঊষাই হবে সংগঠন এর রোল মডেল। ‘

 

 

এ ব্যাপারে ঊষা’র সাধারণ সম্পাদক মোশতাক আহমেদ শাকিল বলেন, ‘করোনাকালীন বাস্তবতাকে সামনে রেখেও নতুন কার্যনির্বাহী কমিটি অনলাইন ভিত্তিক নানারকম কর্মতৎপরতার মধ্য দিয়ে সক্রিয় রয়েছে। আশা করি যত তাড়াতাড়ি পৃথিবীতে সুস্থ্যতা নেমে আসবে ঊষা তত বেশি আরো বেগবান হবে; আরো নানানভাবে মেলে ধরবে উক্ত প্রোগ্রামে যারা নিরলসভাবে শ্রম দিয়ে আয়োজন করতে চেষ্টা করেছে তাদের সবাইকে আন্তরিকভাবে ধন্যবাদ।’