শাল্লায় হিন্দু ধর্মাবলম্বীদের মন্দির ও ঘরবাড়ি ভাংচুর

0
4

কাজল চন্দ্র কর, সুনামগঞ্জ প্রতিনিধি:   সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যমে হেফজত ইসলামের যুগ্ম মহাসচিব মামুনুল হককে নিয়ে কূটোক্তির অভিযোগে সুনামগঞ্জের শাল্লায় ঝুমন দাস আপন নামের এক যুবককে আটক করেছে পুলিশ।

কূটোক্তির ঘটনাকে কেন্দ্র করে উপজেলার হবিবপুর ইউনিয়নের নোয়াগাঁও গ্রামে হিন্দু সম্প্রদায়ের বাড়িঘর ভাংচুর করেছে উশৃঙ্খল জনতা। এসময় তারা ঘরে ও মন্দির ভাংচুর চালায়।

আজ বুধবার সকালে এ ভাঙ্গচুরের ঘটনা ঘটে। বর্তমানে পরিস্থিতি শান্ত রয়েছে এলাকায় পুলিশ মোতায়ান করা হয়েছে।

শাল্লা উপজেলার হবিবপুর ইউনিয়নের চেয়ারম্যান বিবেকানন্দ মজুমদার বকুল বলেন, গ্রামের বেশ কিছু বাড়ি ঘরে হামলার ঘটনা ঘটেছে। পুলিশ সুপার ঘটনা স্থলে অবস্থান করছেন।

শাল্লা থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা নাজমুল হক জানান, গতকাল মঙ্গলবার রাতে ফেইসবুকে হেফাজত ইসলামের কেন্দ্রীয় নেতা মাওলানা মামুনুল হককে নিয়ে বাজে মন্তব্য করে উপজেলার হবিবপুর ইউনিয়নের নোয়াগাঁও গ্রামের গোপেন্দ্র দাসের পুত্র ঝুমন দাস আপন। সে তার নিজের ফেইসবুক এ‍্যাকাউন্ট থেকে মামুনুল হককে নিয়ে একটি অনাকাঙ্খিত স্ট্যাটাস দেয়। এই বিষয়টি স্থানীয়ভাবে ভাইরাল হলে পুলিশ এবং জনতার সহযোগিতায় ১৬ই মার্চ রাতে শাশখাই বাজার থেকে তাকে আটক করা হয়।

কূটোক্তির ঘটনাকে কেন্দ্র করে আজ সকালে একদল দুর্বৃত্ত হামলা চালিয়ে বাড়িঘর ক্ষতিগ্রস্ত ও মন্দির ভাংচুর করে। বর্তমানে পরিস্থিতি শান্ত রয়েছে বলে দাবি পুলিশের।