বিয়ানীবাজারে যুবকের দায়ের কুপে কিশোরী খুন

0
6

সিলেটের বিয়ানীবাজারে নাজিম উদ্দিন নামের এক যুবকের দায়ের কুপে প্রান গেলো নাজনীন আক্তার নামের ১৮ বছরের স্কুল পড়োয়া কিশোরীর,খুনি নাজিম উদ্দিন উপজেলার শেওলা ইউনিয়নের বালিঙ্গা গ্রামের মৃত আব্দুল খালিকের পুত্র,নাজনীন আক্তারও একই গ্রামের শামসুল হক চৌধুরীর পালিত মেয়ে।বিয়ানীবাজারে যুবকের দায়ের কুপে কিশোরী খুন,খুনি গ্রেফতার

জানা যায় শিশুকাল থেকে নাজনীন আক্তারকে কোলেপিঠে মানুষ করেন শামসুল হক চৌধুরী,ইচ্ছে ছিল মেয়েকে ভালো পরিবারে বিয়ে দিবেন,আগামী ১৮ তারিখ বিয়ের দিনকালও ঠিক হয়ে যায়, তবে ঘাতকের দায়ের কুপে বিয়ের আগেই প্রান দিতে হলো নাজনীনের,এলাকাসূত্রে জানা যায় অনেকদিন ধরেই নাজনীন আক্তার কে বিয়ের প্রস্তাব দিয়ে আসছিল খুনি নিজাম উদ্দিন,নাজনীনের পরিবার তা মেনে নেন নি,আর এতেই ক্ষুব্ধ হয়ে আজ দুপুর ১২ ঘটিকার সময় নাজনীনকে ঘরে একা পেয়ে দা দিয়ে কুপিয়ে হত্যা করে নাজিম। ঘটনার পর ঘাতক নাজিম উদ্দিন পলাতক ছিল,তবে শেষ রক্ষা হয়নি,পার্শ্ববর্তী কুড়ারবাজার ইউনিয়নের আঙ্গারজুর গ্রাম থেকে তাকে গ্রেফতার করা হয়।

ঘটনার পর পালিয়ে কুশিয়ারা নদী পাড়ি দিয়ে আঙ্গারজুর এলাকায় আশ্রয় নেয় নাজিম,ফেইসবুকে তার ছবি ছড়িয়ে পড়লে আঙ্গারজুর এলাকার লোকজন তাকে চিনে ফেলে এবং সাথে সাথে এলাকার যুব সমাজ তাকে আটক করে বিয়ানীবাজার থানা পুলিশের কাছে খবর পাঠায়,পরে আনুমানিক সন্ধ্যা ৬টার দিকে পুলিশ এসে ঘাতক নাজিমকে গ্রেফতার করে নিয়ে যায়