পরকীয়া প্রেম অতঃপর যুবকের রহস্যময় আত্মহত্যা

0
1

কানাইঘাট প্রতিনিধি: পরকিয়া সম্পর্কের জের নিয়ে গতকাল মঙ্গলবার সকালের দিকে কানাইঘাটের গোরকপুর গ্রামে জকিগঞ্জ উপজেলাধীন আটগ্রামের গুচ্ছগ্রামে বসবাসরত নও-মুসলিম শাকিল আহমদ (২৫) নামের এক যুবক গলায় ফাঁস লাগিয়ে আত্মহত্যার ঘটনায় এলাকায় বিভ্রাট তৈরি হয়েছে।আত্মহত্যা

এ ঘটনায় কানাইঘাট থানা পুলিশ পরকিয়াকারী প্রেমিকা সহ ৪ব্যক্তিকে আটক করেছে।
তথ্য নিয়ে জানা যায়, জকিগঞ্জ উপজেলাধীন আটগ্রামের (সরকারী আশ্রয়ন) গুচ্ছগ্রামে বসবাসকারী মৃত অনীল বিশ্বাসের ছেলে নও-মুসলিম শাকিল আহমদ ঐ গ্রামেই বসবাসরত তার বন্ধু দুলাল আহমদের স্ত্রী কানাইঘাট উপজেলার লক্ষীপ্রসাদ (পশ্চিম) ইউপির সিঙ্গারীপার গ্রামের রমজান আহমদের মেয়ে সুহানা বেগমের (২১) সাথে পরকিয়া প্রেমের সম্পর্কে জড়িয়ে পড়ে।

গত ২রা এপ্রিল গুচ্ছগ্রাম থেকে পালিয়ে গিয়ে শাকিল আহমদ সুহানা বেগমকে সিলেট শহরে নিয়ে যায়।
গত সোমবার রাতে সুহানার স্বামী দুলাল আহমদ শাকিল ও সুহানার সন্ধান পেয়ে তাদেরকে বুঝিয়ে সুহানা বেগমের খালা কানাইঘাট উপজেলাধীন গোরকপুর গ্রামের রেজিয়া বেগম এর বাড়ীতে নিয়ে আসে। রাতে শাকিল আহমদ, সুহানার স্বামী দুলাল আহমদ ও তার ভাই ইমরান আহমদ একত্রে একই ঘরে রাত্রি যাপন করে।

গতকাল মঙ্গলবার ভোরের দিকে শাকিল আহমদ ঘরের তীরে গলায় লুঙ্গি পেচিয়ে আত্মহত্যা করেছে; এই মর্মে সুহানা বেগমের স্বামী দুলাল ও তার শ্বশুর বাড়ীর লোকজন এলাকার মধ্যে প্রচার করে থানা পুলিশকে খবর দেয়।
সকাল ৮টার দিকে থানার ওসি (তদন্ত) জাহিদুল হকের নেতৃত্বে একদল পুলিশ ঘটনাস্থলে পৌঁছে গলায় লুঙ্গি পেচানো শাকিল আহমদের মরদেহ রেজিয়া বেগমের ঘরের একটি কক্ষের মেঝে থেকে উদ্ধার করে থানায় নিয়ে আসেন।

থানার ওসি (তদন্ত) জাহিদুল হক জানিয়েছেন, শাকিল আহমদের সাথে তার বন্ধু দুলাল আহমদের স্ত্রী সুহানা বেগমের অবৈধ সম্পর্ক ছিল; এমন তথ্য আমরা পেয়েছি। যেহেতু শাকিল আহমদের গলায় লুঙ্গি পেচানো ছিল তাই সে আত্মহত্যা করেছে; এমনটি প্রাথমিক ভাবে ধারণা করা হচ্ছে।
লাশের পোস্ট-মর্ডেম রিপোর্টের পর শাকিলকে হত্যা করা হয়েছে কি না অথবা সে আত্মহত্যা করেছে কি না জানা যাবে।

প্রাথমিক জিজ্ঞাসাবাদের জন্য সুহানা বেগম ও তার স্বামী জকিগঞ্জ উপজেলাধীন আটগ্রামের গুচ্ছগ্রামে বসবাসরত মৃত মুক্তিযোদ্ধা আলাউদ্দিনের পুত্র দুলাল আহমদ ও সুহানা বেগমের খালা কানাইঘাটের গুরকপুর গ্রামের হোসন আহমদের স্ত্রী রেজিয়া বেগম (৪৮) ও সুহানা বেগমের ভাই একই উপজেলার সিঙ্গারীপার গ্রামের রমজান আলীর পুত্র ইমরান আহমদকে(২১) আটক করা হয়েছে বলে এবং সেই প্রেক্ষিতে আইনানুগ ব্যবস্থা গ্রহন করা হবে বলে ওসি জানান।

শাকিল আহমদ নিহতের ঘটনায় তার বড় ভাই ইমরান হোসেন কানাইঘাট থানায় একটি অভিযোগ দায়ের করেছেন। ইমরান হোসেনর অভিযোগ- দুলাল আহমদ ও তার শ্বশুর বাড়ীর লোকজন তার ভাই শাকিলকে গলায় লুঙ্গি পেচিয়ে শাসরুদ্ধ করে হত্যা করেছে।
তার ভাইয়ের শরীরের বুকে আঘাতের চিহ্ন রয়েছে এবং তার ভাই (শাকিল) যে মারা গেছে বিষয়টি থানা থেকে তাদেরকে গতকাল বিকেল ৩ টার দিকে জানানোও হয়েছে।