মোংলা-খুলনা মহাসড়কে সড়ক দুর্ঘটনায় এক যুবতীর মৃত্যু

0
11

আবুল হাসান, বাগেরহাট জেলা,প্রতিনিধি: শুক্রবার সন্ধ্যায় মোংলা-খুলনা মহাসড়কের দিগরাজ এলাকায় মর্মান্তিক এ দুর্ঘটনা ঘটে। এতে মটরসাইকেল চালকও আহত হয়েছেন।

মোংলা-খুলনা মহাসড়কে সড়ক দুর্ঘটনায় এক যুবতীর মৃত্যু
মোংলা-খুলনা মহাসড়কে সড়ক দুর্ঘটনায় এক যুবতীর মৃত্যু

পুলিশ ও স্থানীয়রা জানান, শুক্রবার সন্ধ্যা সোয়া ৭টার দিকে সুচন্দ্রা (২১) নামের এক যুবতী মোংলা বন্দর এলাকা থেকে তার দূরসম্পর্কের এক মামার মোটরসাইকেল মোংলা-খুলনা মহাসড়কের দিগরাজ বাজারে যাচ্ছিলেন।

মোটরসাইকেলটি দিগরাজ বাজারে পৌঁছাতেই পিছন দিক থেকে আসা একটি ট্রাক সেটিকে ধাক্কা দেয়। এতে মটরসাইকেলের পিছন থেকে ওই যুবতী ছিটকে চলন্ত ট্রাকটির চাকার নিচে পড়েন। এ সময় যুবতীর মাজার নিচের অংশের উপর দিয়ে ট্রাকের চাকা চলে যায়।

সেখান থেকে তাকে অচেতন অবস্থায় উদ্ধার করে বন্দর হাসপাতালে নেয়া হয়। সেখানে প্রাথমিক চিকিৎসা দিয়ে রাত ৮ টার দিকে তাকে খুলনা মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে পাঠানো হয়। খুলনা মেডিকেলে নেয়ার পর রাত সোয়া ১০টার দিকে সেখানে তার মৃত্যু হয়। নিহত সুচন্দ্রা মোংলার বুড়িরডাঙ্গা এলাকার জগবন্ধুর মেয়ে।

সুচন্দ্রার মা বর্ণালী বলেন, তাদের মেয়ে সুচন্দ্রার ঢাকায় বিয়ে হয়েছিলো। তার ৪ বছরের একটি সন্তানও রয়েছে। সেই সংসার ছেড়ে এসে সুচন্দ্রা নাম পাল্টিয়ে হাসি নামে মোংলা ইপিজেডে চাকরি নিয়ে বন্দর এলাকায় আলাদা বসবাস করতো। তাদের সাথে মেয়ের যোগাযোগ ছিলনা দীর্ঘদিন। আর যার মটরসাইকেলে চড়ে সুন্দ্রার মৃত্যু হয়েছে তিনি মোংলা বন্দরের আনসার সদস্য আকাশ মাহামুদ। আকাশ মাহামুদকেও চিনেন না নিহত সুচন্দ্রার মা। তার মেয়ের সাথে আকাশ মাহামুদের কি সম্পর্ক তা তিনি জানেননা বলে জানান তিনি।

মোংলা থানার এসআই অমিত বলেন, মেয়েটির পরিবারের সাথে সম্পর্ক না থাকা ও দূরসম্পর্কের মামার সাথে মটরসাইকেলে যাওয়ার বিষয়টির মধ্যে রহস্য রয়েছে। আমরা সেই রহস্য উদঘাটনের চেষ্টা করছি। তিনি আরো বলেন, যে ট্রাকটি এ দুর্ঘটনা ঘটিয়েছে চালক ইলিয়াছসহ ট্রাকটি আটক করা হয়েছে।