ব্রাহ্মণবাড়িয়ায় শিল্পকলা একাডেমির উদ্যোগে মঞ্চনাটক অনুষ্ঠিত

0
1

ব্রাহ্মণবাড়িয়া প্রতিনিধিঃ বাংলাদেশ শিল্পকলা একাডেমির উদ্যোগে জেলা শিল্পকলা একাডেমির প্রযোজনায় জাতির পিতা বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমানের জন্মশতবার্ষিকী উপলক্ষে নাটক “রক্তঋণ” মঞ্চস্থ হয়েছে । গতকাল রবিবার (৭ মার্চ) সন্ধ্যায় স্থানীয় সুরসম্রাট ওস্তাদ আলাউদ্দিন খাঁ পৌর মিলনায়তনে এই নাটকটি অনুষ্ঠিত হয়। এতে প্রধান অতিথি হিসেবে উপস্থিত ছিলেন মাধ্যমিক ও উচ্চশিক্ষা অধিদপ্তরের সাবেক মহাপরিচালক (গ্রেড-১) এবং ইউনিভার্সিটি অফ ব্রাহ্মণবাড়িয়ার ভারপ্রাপ্ত উপাচার্য অধ্যাপক ফাহিমা খাতুন। অনুষ্ঠানে বিশেষ অতিথি হিসেবে উপস্থিত ছিলেন ব্রাহ্মণবাড়িয়ার সুযোগ্য জেলা প্রশাসক জনাব হায়াত-উদ-দৌলা খান, ব্রাহ্মণবাড়িয়া সরকারি কলেজের অধ্যক্ষ অধ্যাপক ড. মো. শাহ আলম, ব্রাহ্মণবাড়িয়া সরকারি মহিলা কলেজের অধ্যক্ষ অধাপক আ স ম শফিকুল্লাহ সহ অন্যান্যরা।

অনুভূতি প্রকাশ করতে গিয়ে ফাহিমা খাতুন বলেন,
” সংস্কৃতির রাজধানী খ্যাত ব্রাহ্মণবাড়িয়া তার পুরানো ঐতিহ্য ফিরে পেতে শুরু করেছে। একসময় মৌলবাদের কালো থাবায় ছেয়ে যাওয়া এই জেলা আবার সংস্কৃতির অন্যতম পীঠস্থান হিসেবে আজ পরিগণিত। ভালো ভালো কাজ হচ্ছে। জাতির পিতার রক্তঋণ এখনো শোধ হয় নি। মেজর ডালিমের মতো বঙ্গবন্ধুর আত্ম স্বীকৃত খুনিদের ফাঁসি কার্যকার হলেই এই রক্তঋণ শোধ হবে। ”

আগামীতেও এমন সৃজনশীল কাজ অব্যাহত রাখার ব্যাপারে সর্বাত্মক সহায়তা প্রদানের আশ্বাস দিয়েছেন তিনি। এছাড়া নাটকের সমস্ত কলাকুশলীদেরও প্রশংসা ঝরে পড়ে তাঁর মুখে।

শিল্পকলা একাডেমির সভাপতি এবং জেলা প্রশাসক হায়াত-উদ-দৌলা খান জানান,
” সৃজনশীলতার এক অনন্য উদাহরণ এই নাটকটি। অভিনয়শিল্পীদের অভিনয়ে আমি অভিভূত।”

জেলার সাংস্কৃতিক ক্ষেত্রের উন্নয়নকল্পে সবাইকে আরো এগিয়ে আসার আহবান জানান তিনি।

জেলা শিল্পকলা একাডেমির সাধারণ সম্পাদক এস আর এম ওসমান গণি সজীব এবং নাট্য নির্দেশক ও বিশিষ্ট সাংস্কৃতিক ব্যক্তিত্ব মনজুরুল আলম আমন্ত্রিত অতিথিবৃন্দের প্রতি কৃতজ্ঞতা প্রকাশ করে এই কাজ অব্যাহত রাখার প্রত্যয় ব্যক্ত করেন।