শুধু সরকার নয় জনগনেরও হতে হবে সচেতন

0
1

চলতি করোনা মহামারিতে প্রতিদিন রেকর্ড পরিমাণ আক্রান্ত হচ্ছে,মারাও যাচ্ছে অনেক।আজ কয়েকজন কম মারা গেলে কাল আবার বেড়ে হয়ে যাচ্ছে রেকর্ড।গত কয়েকদিন থেকে এভাবেই চলছে করোনার তান্ডবলীলা। ইতোমধ্যেই অনেক গুরুত্বপূর্ণ মানুষকে হারিয়েছে দেশ।প্রতিদিন প্রতিটি পত্রিকা টিভি চ্যানেলে সংবাদ প্রচার হচ্ছে।তবুও সচেতন হচ্ছেনা মানুষ। এর দায় কী শুধুই সরকারের?দেশের জনগন হিসেবে কী সাধারণ মানুষের উপর একটুও দায়ভার পড়ে না?প্রশাসনের পক্ষ থেকে সবসময় সচেতন করার প্রয়াস চালালেও অধিকাংশ মানুষ তা আমলেই নিচ্ছে না।বিশেষ করে গ্রামের মানুষ করোনা সম্পর্কে সম্পুর্ণ উদাসীন। অনেক যায়গা আছে যেখানকার মানুষ করোনা কি এটাই মানতে চায়না।মাস্ক পরার প্রয়োজনীয়তা উপলব্ধি তো দুরের কথা উল্টো তরকে লিপ্ত হয়।কিংবা কোন সচেতন মানুষ মাস্ক পরলে তাকে নিয়ে হাসাহাসি করে।গ্রামের এ সকল মানুষকে সচেতন করার জন্য এগিয়ে আসতে হবে শিক্ষিত সমাজের।এ ক্ষেত্রে প্রতিটি গ্রামে কোভিড-১৯ সেচ্ছাসেবী টীম গঠন করে সচেতনতার পাশাপাশি করোনার  বিভিন্ন সরঞ্জামাদি বিতরণ করা প্রয়োজন।আর এর পুরো দায়িত্ব দেয়া যায় স্কুল কলেজের শিক্ষক শিক্ষিকাদের। দেশের প্রতিটি পাড়া,প্রতিটি মহল্লা,প্রতিটি গ্রামে তরুণ শিক্ষিত সমাজ ও শিক্ষক শিক্ষিকারা এভাবে একসাথে কাজ করলে মানুষকে সচেতন করে করোনার ক্ষতি অনেকটাই কমিয়ে আনা সম্ভব বলে আশা করা যায়।