অসম্পূর্ণ রেখেই জাতীয় কবির ভাস্কর্য উদ্বোধন জাককানইবিতে

0
3

মোহাম্মদ এরশাদ, জাককানইবি প্রতিনিধি, ২৫শে মে, ২০২১।
অসম্পূর্ণ রেখেই জাতীয় কবির ভাস্কর্য উদ্বোধন হল ময়মনসিংহের ত্রিশালে কবি নজরুলের স্মৃতিতে প্রতিষ্ঠিত জাতীয় কবি কাজী নজরুল ইসলাম বিশ্ববিদ্যালয়ে।

ভাস্কর্য নির্মাণের মেয়াদ শেষ হওয়ার দুই বছর পরে জাতীয় কবির ১২২ তম জন্মবার্ষিকীতে অসম্পন্ন ভাস্কর্য উদ্বোধন করেন বিশ্ববিদ্যালয়ের উপাচার্য প্রফেসর ড. এ এইচ এম মোস্তাফিজুর রহমান।

অর্থাৎ, ২০১৯ সালের জুন-জুলাই মাসে শেষ হওয়ার কথা থাকলেও ২০১৭-১৮ অর্থবছরে শুরু হওয়া নজরুল ভাস্কর্য প্রকল্পের কাজ নির্ধারিত করতে পারেনি ঠিকাদারি প্রতিষ্ঠান। জানা যায়, বিশ্ববিদ্যালয় প্রশাসন বিভিন্ন অজুহাতে সময়ে সময়ে নির্মাধীন প্রতিষ্ঠান প্রকল্পের ব্যয় বৃদ্ধির প্রস্তাবে একের পর এক অনুমোদন দিয়েছেন।

শুধুমাত্র দুটি ভাস্কর্যের বেদী নির্মানে ৪২ লাখ টাকা থেকে বেড়ে ১কোটি ১২ লাখে পৌছেছে নির্মানব্যায়। তাছাড়া, প্রকল্প নির্মাণে অনিয়ম ও দুর্নীতির অভিযোগও রয়েছে। একই সাথে শুরু হওয়া জাতির জনক বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমানের ভাস্কর্য ২০২০ সালের ১৭ মার্চ সম্পূর্ণ কাজ শেষ না করেই বিশ্ববিদ্যালয় প্রশাসন তা উদ্বোধন করলে কিছুদিনের মধ্যের ভাস্কর্যের পলেস্তারা ও টাইলস খসে পড়তে দেখা গিয়েছিল। সাদা কাপড়ে অসম্পূর্ণ ভাস্কর্যের নিচের অংশ মুড়িয়ে এবং লাল গালিচার ব্যবহার করে মঙ্গলবার (২৫মে) বেলা সাড়ে ১১টায় পুষ্পস্তবক অর্পণের মধ্য দিয়ে বিশ্ববিদ্যালয়টির উপাচার্য নজরুল ভাস্কর্যের উদ্বোধন ঘোষণা করেন।

ভাস্কর্যের উদ্বোধন প্রসঙ্গে পরিকল্পনা ও ওয়ার্কার্স দপ্তর প্রধান প্রকৌশলী হাফিজুর রহমান বলেন, যতটুকু হইসে করোনা পরিস্থিতি ততটুকু করা হয়েছে। কাজ সম্পূর্ণ করেই যে উদ্বোধন করতে হবে তা কিন্তু নয়।এই অবস্থাটাকে শেষ বললেও সমস্যা নেই ।এখন আমি যদি বলি স্বর্ণ দিয়ে মোড়াবো,টাইলস লাগাবো তার জন্যে তো সময় রয়েছেই।আমার পারপাস সার্ভ করার জন্যে যে অবস্থায় আছে তা যথেষ্ট।

বিশ্ববিদ্যালয়টির রেজিস্ট্রার (ভারপ্রাপ্ত) কৃষিবিদ ড. হুমায়ুন কবির বলেন, কাজ সম্পূর্ণ করে উদ্বোধন করতে পারলে ভালো হতো কিন্তু কবির জন্মদিনের বিশেষ দিনটিতে আমরা উদ্বোধন করতে চেয়েছি।