মাগুরা জেলা প্রসাশকের কাছে শ্রমজীবীদের জন্যে অর্থ ও খাবার দাবি করেছে “বাসদ”

0
0

শাহাদত হোসাইন, মাগুরা প্রতিনিধি:

করোনা মহামারীর কারণে চলমান লকডাউনে ক্ষতিগ্রস্ত শ্রমজীবীদের মাঝে অর্থ ও খাদ্য সামগ্রী বিতরণের দাবি জানিয়েছে বাংলাদেশ সমাজতান্ত্রিক দল-বাসদ।

আজ দুপুরে বাংলাদেশ সমাজতান্ত্রিক দল-বাসদ মাগুরা জেলা শাখার পক্ষ থেকে মাগুরা জেলা প্রশাসক ড. আশরাফুল আলমের হাতে স্মারকলিপি তুলে দেন বাসদ কেন্দ্রীয় পাঠচক্র ফোরামের সদস্য প্রকৌশলী শম্পা বসু ।

এ সময় প্রকৌশলী শম্পা বসু জানান, সারাদেশে করোনা মহামারির দ্বিতীয় ঢেউ চলছে। প্রথম ঢেউয়ের তুলনায় দ্বিতীয় ঢেউয়ে মৃত্যু ও আক্রান্তের সংখ্যা অনেক বেশি । এ পরিস্থিতিতে গত ১৪ এপ্রিল থেকে সারাদেশে সর্বাত্মক লকডাউন ঘোষণা করা হয়েছে ।

মাগুরা জেলা বাংলাদেশের ৫টি দরিদ্র জেলার মধ্যে অন্যতম। এখানে মোট জনসংখ্যার অর্ধেকের বেশি মানুষ দারিদ্র্যসীমার নিচে বসবাস করে। করোনা সংক্রমণের আশংকায় ঘোষিত লকডাউনে দরিদ্র শ্রমজীবী মানুষ আরও বেশি সংকটে পড়েছে । মাগুরায় বড় কোন শিল্প কলকারখানা নেই বলে এখানে প্রায় শতভাগ শ্রমজীবী মানুষ অপ্রাতিষ্ঠানিক খাতে কাজ করে। করোনার প্রথম ধাক্কায় কারণে দেশের প্রায় ৯৫ ভাগ শ্রমজীবী মানুষের আয় কমে গেছে। আবার রমজানকে কেন্দ্র এসময় চাল ডাল তেলসহ নিত্যপ্রয়োজনীয় পণ্যের দাম অনেক বেড়ে গেছে।

এ অবস্থায় লকডাউনে কর্মহীন শ্রমজীবী মানুষ ভীষণ আর্থিক সংকটে পড়েছে । এদের তেমন কোন সঞ্চয়ও নেই যা দিয়ে তারা এই সংকট মোকাবিলা করতে পারবে । এদের মধ্যে অনেকেই বৃদ্ধা মায়ের ওষুধ কিনে দিতে পারছেন না, শিশু সন্তানকে প্রয়োজনীয় খাবারটুকু জোগাড় করে দিতে পারছেন না । এ পরিস্থিতিতে কর্মহীন ওইসব শ্রমজীবী মানুষের একটি সংক্ষিপ্ত তালিকা করা হয়েছে।

এ অবস্থায় জেলার অসহায় কর্মহীন মানুষের নামে রাষ্ট্রের বরাদ্দকৃত অংশ থেকে এই শ্রমজীবী মানুষদের সহযোগিতা দান করার জন্যে দাবি জানানো হয়।