বখাটের চড়ে কানের পর্দা ফেটে গেলো রিক্সা চালকের

0
7

রাজীব প্রধান, গাজীপুর: গাজীপুরের শ্রীপুরে, অটোরিক্সার সাথে মোটরসাইকেলের ধাক্কার জের ধরে অটোরিকশা চালক শহিদ (৭০) কে বেধড়ক মারধর করেন বখাটেরা।

শনিবার সকাল অনুমান ১১ টায় শ্রীপুর থানা মোড় হতে শ্রীপুর চৌরাস্তায় যাওয়ার পথে এ ঘটনাটি ঘটে। রিক্সা চালক শহিদের থানায় লিখিত অভিযোগ সূত্রে জানা যায়, বাদী রিকশা চালক শহিদ, শ্রীপুর পৌরসভার লোহাগাছ গ্রামের মৃত কেরামত আলীর ছেলে।

ঘটনার দিন অনুমান ১১ টায় সে তার অটো রিকশা নিয়া শ্রীপুর থানার মোড় থেকে শ্রীপুর চৌরাস্তার উদ্দেশ্যে রওনা দিয়ে বিসমিল্লাহ হোটেলের সামনে এলে বিবাদিদ্বয় পিছন থেকে তার অটোরিকশায় সজোড়ে ধাক্কা দিয়ে পড়ে যায়, রিকশাচালক শহিদ (৭০) তার অটো থামিয়ে তাদের উঠাতে গেলে বিবাদী ১/মোঃঅনন্ত(২০), পিতা মৃত : বাচ্চু মিয়া ২/মোছাঃ সুরমা বেগম(৪০) উভয় সাং; পৌর ১ নং ওয়াড,শ্রীপুর -গাজীপুর , সহ অজ্ঞাত নামা ২/৩ জন লোক রিকসাওয়ালা শহিদকে( ৭০) এলোপাথারি ভাবে কিল-ঘুষি সহ লাথি মারতে থাকে।

এ বিষয়ে শহিদ সাংবাদিকদের জানায়, বিবাদী অনন্ত আমাকে অকথ্য ভাষায় গালি গালজ করে আমার বাম কানে সজোড়ে আঘাত করলে আমি বেহুশ হয়ে মাটিতে পরে যাই পরে অবস্থার খারাপ দেখে বখাটেরা ঘটনা স্থল থেকে পালিয়ে যায়। আশেপাশে থাকা লোকজন আমাকে উদ্ধার করে শ্রীপুর উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্স এ নিয়ে আসে।

জ্ঞান ফিরে দেখি বাম কানে প্রচন্ড ব্যথা আর কানে শুনতে পাইনা,চিকিৎসা নেওয়ার পরে স্থানীয় গণ্যমান্য লোকদের সহায়তায় আমি থানায় এসে একটি লিখিত অভিযোগ দায়ের করি এবং নিজে এটা জমা দিই।উল্লেখ্য ১ নং বিবাদী আমার পানজাবির পকেটে থাকা ৫০ টাকা ১০০ টাকা সহ প্রায় ১ হাজার টাকা ছিনিয়ে নিয়ে যায়।

রিকশাচালক শহিদ(৭০) তার জীবনের শেষ প্রান্তে এসে লাঞ্ছিত হলো বখাটে হাতে। তাই এর তদন্ত সাপেক্ষে সঠিক বিচারের দাবি জানিয়েছেন সাংবাদিকদের মাধ্যমে প্রশাসনের কাছে।