লাথিতে গর্ভবতী নারীর মৃত সন্তান

0
0

বিপুল জামান লিখন(নেত্রকোণা প্রতিনিধি)

নেত্রকোণার কেন্দুয়া উপজেলার সান্দিকোণা ইউনিয়নের সান্দিকোণা গ্রামের খাদিজা নামের এক নারীর পতিপক্ষের লাথিতে গর্ভ সন্তান মৃত্যু হয়।ঘটনাটি ঘটে (৩০ এপ্রিল) দিনের বেলা।

স্থানীয় সূত্রে জানা যায়,পূর্ব শত্রুতার জের ধরে আব্দুস সাত্তারের ছেলে বাবু মিয়া,পাশের গ্রাম খিদিরপুরের ভাড়াটে রফিকুল ইসলাম,হলুদ মিয়া ওলিটন মিয়া আবুল কালামের বাড়িতে হামলা চালায়।এসময় হামলাকারীদের আঘাতে আবুল কালামের ছেলে মাঈনুলসহ মা,স্ত্রী মারাত্বকভাবে আঘাত প্রাপ্ত হয়।মাঈনুলের ভাই খায়রুলের বউ খাদিজা সামনে আসায় হামলাকারীর লাথিতে অন্তঃসত্ত্বা নারী আহত হোন।পরে ময়মনসিংহ মেডিকেল কলেজ হসপিটালে ভর্তি করলে (৪ মে) কর্তব্যরত চিকিৎসক একটি মৃত ছেলে সন্তান জন্ম হয়।ময়নাতদন্তের রিপোর্টে বলা হয় আঘাতজনিত কারণে বাচ্চার মৃত্যু হয়।অবশ্য (৩ মে) এ বিষয়ে কেন্দুয়া থানায় একটি মামলা করা হয়।

আব্দুস সাত্তার অনেক দিন আগে খিদিরপুর গ্রাম থেকে বিতাড়িত সান্দিকোণার অস্থায়ী বাসিন্দা।সে গ্রামে তুচ্ছ ঘটনাকে কেন্দ্র করে বৃহৎ আকৃতি ধারণ করে।এছাড়াও সে একটি হত্যাকান্ডের তালিকাভুক্ত আসামি।প্রায় সময় গ্রামে দাঙ্গা হাঙ্গামা লাগিয়ে রাখে।

কেন্দুয়া থানার উপপরিদর্শক(এস আই) নোমান সাদেকীন বলেন,খাদিজার গর্ভের বাচ্চা মারা যাওয়া ব্যাপারটি আগের মামলায় যুক্ত করা হবে এবং তদন্ত সাপেক্ষ অভিযুক্তদের আদালতে অভিযোগপত্র দেওয়া হবে।

মামলার পর থেকে এখনো কাউকে আটক করতে পারেনি পুলিশ।