রাঙ্গামাটির বরকলে ক্ষমতাসীন দলের নেতার হামলা মারাত্নক আহত নারীসহ ৩

0
2

আরিফুল ইসলাম: আজ ৯ই এপ্রিল রোজ শুক্রবার রাঙ্গামাটি জেলার বরকল উপজেলাধীন ভুষনছড়া ইউনিয়নের এরাবুনিয়ার ৫ নং ওয়ার্ডে জোর করে জমি দখল করতে গিয়ে আওয়ামী লীগের সাবেক সহ সভাপতি মোতালেব মুন্সি ও তার ছেলে জান্নাত মুন্সি,রবিউল সাইফুল ও ফরিদ মিলে ৫ নং ওয়ার্ডের বাসীন্দা মো আজাদ(৫০) ও তার স্ত্রী লিপি বেগম ৪০কে জমি বিরোধের জের ধরে বেধরকভাবে মেরে আহত করেছেন বলে জানা যায়।

আহত আজাদ জানান তার জমির মধ্যে থাকা তুলাগাছ হতে মোতালেব ও তার ছেলে ও ভাইয়েরা জোর করে তুলা সংগ্রহ করে নিয়ে যাবার সময় সে বাধা প্রদান করতে চাইলে মোতেলব, জান্নাত,সাইফুল,ফরিদ,পোনা মিয়া,জাকির ও রবিউলসহ আরো দুচারজন অজ্ঞাত ব্যাক্তির সহযোগীতায় আমি এবং আমার স্ত্রী লিপিবেগম,আমার ভাতিজা হযরত এবং আমার ছোট মেয়ের ওপড় গাছের লাঠি ও ধারালো অস্ত্র নিয়ে হামলা চালায়।পরবর্তীতে আমাদের চিৎকার চেঁচামেচিতে পার্শবর্তী এলাকার লোকজন এসে জড়ো হলে তারা পালিয়ে যায়,যাবার সময় ঘড় ভেঙ্গে ঘড়ে থাকা ৫ লক্ষ টাকা ও স্বর্ণালংকার লুট করে নিয়ে যায় তারা।

এ বিষয় ৫ নং ওয়ার্ডে ইউপি সদস্য মো আব্দুস সবুর তালুকদার জানান,আমি বিষয়টা সম্পর্কে ইতিমধ্যেই অবগত হয়েছি।মোতালেবকে অত্র এলাকাতে সবাই মামলাবাজ হিসেবেই চিনে আসছে।বিভীন্ন ব্যাক্তির জমি দখলসহ তাদেরকে মিথ্যা মামলায় ফাসানোসহ বিভীন্নভাবে অত্যাচার করে থাকে।এ ক্ষেত্রে তার সহযোগী তার তিন ছেলে ও কিছু নিকটআত্নীয়রা। এর মধ্যে তার বড় ছেলে জান্নাত এরাবুনিয়া সরকারি প্রাথমিক বিদ্যালয়ের দপ্তরী কাম নৈশ প্রহরী পদে থাকলেও সে উক্ত চাকুরীর তোয়াক্কা না করেই বিভীন্ন সময়ে বিভীন্ন প্রকার অরাজকতায় লিপ্ত থাকে।আজ তারা পুর্বপরিকল্পিতভাবে আজাদের পরিবারের ওপড় আক্রমন চালায় বলে প্রত্যেক্ষদর্শীরা জানান।এতে করে আজাদের পরিবার মারাত্নক আহত হয়েছেন বলে জানা যায়।সংগঠনের প্রভাব খাটিয়ে তিনি এসব করে যাচ্ছেন।উক্ত মারামারিতে জড়িত মোতালেবের দুই ভাই ওমর আলী ওরফে পোনা মিয়া এবং মো জাকির অত্র এলাকার নামকরা গাজা ব্যবসায়ী।

এ বিষয়ে ভুষনছড়া ইউপি চেয়ারম্যান মো মামুনর রশিদ জানান,উক্ত ঘটনাটি সম্পর্কে আমরা নিশ্চিত হয়েছি।মোতালেব ও তার পরিবার অত্যান্ত উগ্র ও উশৃঙ্খল।তারা স্থানীয় বিচার মানতে নারাজ হবার দরুন আমরা নির্যাতিত পরিবারকে আইনের আশ্রয় নেবার পরামর্শ দিয়েছি।তার সাথে সাথে আহত ব্যাক্তিদের চিকিৎসার বিষয়টিতেও’ আমরা সুনজর রাখছি।