পুলিশকে হত্যার চেষ্টা গুলিতে ধরাশায়ী দুই ছিনতাইকারী

0
1

সীতাকুন্ড প্রতিনিধি:   পুলিশ সদস্যকে গলা কেটে ‘হত্যা চেষ্টার’ সময় তার সহকর্মীদের গুলিতে দুই ছিনতাইকারী আহত হয়েছে।

গতকাল রাতে আকবরশাহ থানার উত্তর কাট্টলী ছোট কালীবাড়ি সংলগ্ন দাশপাড়া এলাকায় এ ঘটনা ঘটে। দুই ছিনতাইকারী ছাড়াও এ ঘটনায় তিন পুলিশ আহত হয়েছেন। আহত পুলিশ সদস্যরা হলেন- এসআই সুবল কুমার দাশ, মো. ইসমাইল ও এএসআই নিখিল চন্দ্র। গুলিবিদ্ধ দুই ছিনতাইকারী ইমাম হোসেন ইমন (৩৫) ও আরাফাত হোসেন সুমন (৩৪)।

তাদের চট্টগ্রাম মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে ভর্তি করা হয়েছে।
ইমন পুলিশের তালিকাভুক্ত ছিনতাইকারী। তার বিরুদ্ধে অন্তত ১৪টি মামলা আছে বলে জানান নগর পুলিশের উপ-কমিশনার (পশ্চিম) আব্দুল ওয়ারীশ। তিনি বলেন, ‘বুধবার পাহাড়িকা ফিলিং স্টেশনের সামনে বেসরকারি বিশ্ববিদ্যালয়ের এক শিক্ষার্থী ছিনতাইয়ের শিকার হয়েছিল।

গতকাল (বৃহস্পতিবার) নগরীতে সিএনজি অটোরিকশা নিয়ে ছিনতাইকারীরা বের হয়েছে এমন সংবাদের ভিত্তিতে অকবরশাহ থানা পুলিশের সদস্যরা তৎপর হয়।

আকবর শাহ মোড়ে পুলিশ সদস্যরা ছিনতাইকারীদের বহনকারী অটোরিকশা শনাক্ত করে ধাওয়া করে। বিভিন্ন স্থানে ধাওয়া করার পর তারা উত্তর কাট্টলীর দিকে চলে যায়। বিভিন্ন দিকে ধাওয়া করার কারণে আমাদের কয়েকজন পুলিশ সদস্যও ছড়িয়ে-ছিটিয়ে যায়।’

পুলিশ কর্মকর্তা ওয়ারীশ বলেন, ‘উত্তর কাট্টলী দাশপাড়ায় সুভাষ দাশের গ্যারেজের কাছে ছিনতাইকারীদের দেখে এসআই সুবল দুইজনকে ধরে ফেলে, এসময় ছিনতাইকারীরা তার গলায় ছুরি চালায়।’

অতিরিক্ত উপ-কমিশনার (পশ্চিম) এএএম হুমায়ুন কবির বলেন, ‘ছিনতাইকারীদের বহনকারী সিএনজিটিকে বিভিন্ন স্থানে ধাওয়া করার সময় তারা আমাদের মোটর সাইকেল আরোহী দুই পুলিশ সদস্যকেও ধাক্কা দিয়ে ফেলে দেয়। উত্তর কাট্টলী এলাকায় এসআই সুবল দুইজনকে ধরে ফেললে তারা তাকে মাটিতে ফেলে ছুরি দিয়ে জবাই করার চেষ্টা করে।

এসময় তাদের লক্ষ্য করে আসা অন্য পুলিশ সদস্যরা ছিনতাইকারীদের দিকে গুলি ছুড়লে দুই ছিনতাইকারীর পায়ে গুলি লাগে।