কাউনিয়ায় স্বামী পরিত্যক্তা নারী ধর্ষণ

0
11

জাকির ইসলাম মিন কাউনিয়া (রংপুর) প্রতিনিধি :

রংপুরর কাউনিয়ায় বিয়ের প্রলোভন দেখিয়ে স্বামী পরিত্যাক্তা এক নারীকে ধর্ষণের অভিযোগ উঠেছে। উপজেলার টেপামধুপুর ইউনিয়নের চর আজম খাঁ গ্রামে এ ঘটনা ঘটে। এ ঘটনায় ওই নারী বাদী হয়ে কাউনিয়া থানায় ধর্ষণ মামলা দায়ের করলেও ধর্ষককে গ্রেফতার করতে পারেনি পুলিশ। পুলিশ ও স্থানীয়রা জানায়, ওই নারীর সঙ্গে তার স্বামীর দীর্ঘদিন আগে বিয়ে বিচ্ছেদ হয়। এরপর ওই নারী সন্তানকে নিয়ে পিতার বাড়িতে বসবাস করেন। পিতার আর্থিক অবস্থা শোচনীয় হওয়ায় ওই নারী অন্যের জমিতে কৃষি শ্রমিকের ও বাসাবাড়িতে গৃহকর্মীর কাজ করে জীবিকা নির্বাহ করতেন। আর ওই নারীর অভাব-অনটনে সুযোগে প্রতারণার আশ্রয় নিয়ে একই গ্রামের আবুুল হকের পুত্র দুই সন্তানের জনক রইচ উদ্দিন (৪৫) বিয়ের প্রলোভন দেখিয়ে গত মে মাসে প্রথম ওই নারীকে ধর্ষণ করে। এরপর থেকে রইচ উদ্দিন ওই নারীর সঙ্গে বিভিন্ন সময়ে শারীরিক ভাবে মেলামেশা করে। গত ৩০ শে জুলাই শুক্রবার রাতে রইচ উদ্দিন ওই নারীর ঘরে প্রবেশ করে আবারও বিয়ের প্রলোভন দেখিয়ে ধর্ষণের চেষ্টা করে। এ সময় ওই নারীর চিৎকারে পরিবারের ও স্থানীয় লোকজন ঘটনাস্থলে রইচ উদ্দিনকে আটক করে। পরে স্থানীয় ইউপি সদস্য ঘটনাটি জানতে পেরে বিষয়টি ধামাচাপা দেওয়ার জন্য সালিশী বৈঠক বসায়। সালিশ বৈঠকে থেকে আটক অভিযুক্ত রইচ উদ্দিন পালিয়ে যায়। এরপর রবিবার সকালে থানা পুলিশ খবর পেয়ে ঘটনাস্থল থেকে ভিকটিম ওই নারীকে উদ্ধার করে। কাউনিয়া থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) মাসুমুর রহমান ঘটনার বিষয় নিশ্চিত করে বলেন, এ ঘটনায় রবিবার সন্ধ্যায় ওই নারী বাদী হয়ে নারী শিশু নির্যাতন দমন আইনে ৯(১) ধারায় রইচ উদ্দিনকে আসামি করে মামলা দায়ের করেছেন। তিনি বলেন, স্বাস্থ্য পরীক্ষার জন্য সোমবার ওই নারীকে রংপুর মেডিকেল কলেজ হাসপাতালের ফরেনসিক বিভাগে পাঠানো হয়েছে। অভিযুক্ত রইচ উদ্দিনকে গ্রেপ্তারের চেষ্টা চলছে।