১৬ বছরেও নিষ্পত্তি হয়নি নারী ও শিশু নির্যাতনের অসংখ্য মামলা

0
29

সৌরভ কুমার ঘোষ: আইনে ১৮০ দিনের মধ্যে মামলা নিষ্পত্তির বিধান থাকলেও ১৬ বছরেও শেষ হয়নি বিচার কাজ। ঢাকার নারী ও শিশু নির্যাতন দমন আদালতগুলোর নথি ঘেঁটে দেখা যায় ঝুলে আছে এমন অসংখ্য মামলা। ফলে ভোগান্তির শিকার হচ্ছেন বিচারপ্রার্থীরা।

রাষ্ট্রপক্ষের আইনজীবীরা জানান, আসামি খুঁজে না পাওয়ার কারণেই বিচার থমকে যায়। তবে বিশিষ্টজনরা বলছেন, মামলা সংশ্লিষ্টদের অবহেলা আর অনিয়মের কারণেই বিচার বিলম্বিত হচ্ছে।

ঢাকায় স্থাপিত ৫টি নারী ও শিশু নির্যাতন দমন আদালতের নথি ঘেঁটে দেখা যায়, আইনি বিধি রয়েছে ১৮০ দিনের মধ্যে মামলা নিষ্পত্তি করার, কিন্তু বাস্তবে তার কোন নজির খুঁজে পাওয়া যায়নি। বরং ১৫ বছরের বেশী সময় ঝুলে আছে অসংখ্য মামলা। এর জন্য আসামিদের হাজির করতে না পারাকে দায়ী করেন রাষ্ট্র নিযুক্ত আইনজীবী।

আদালতের রেকর্ড বলছে : ঢাকার নারী ও শিশু নির্যাতন দমন আদলতে মোট ১১হাজার ৭৬৩ টি মামলা বিচারাধীন রয়েছে। ৫টি নারী ও শিশু নির্যাতন দমন আদলতে বিচারাধীন মামলার সংখ্যা প্রায় ১১৭৬।

এক নম্বর আদলতে ২৬৬৮ টি। দুই নম্বর আদালতে ২০০০ এর বেশি। তিন নম্বর আদালতে ২২০৬ টি। চার নম্বর আদালতে ২৯৯১টি। পাঁচ নম্বর আদালতে ১৮৯৮টি। মামলা নিষ্পত্তির এই দীর্ঘসূত্রতার জন্য ত্রুটিপূর্ণ আইন, বিচার সংশ্লিষ্টদের অবহেলা এবং অনিয়মকে দায়ী করছেন অ্যাডভোকেট সালমা আলী।

২০০০ সালের নারী ও শিশু নির্যাতন দমন আইনের ২০ ধারায় ১৮০ দিনের মধ্যে মামলা নিষ্পত্তির বিধান রয়েছে। এছাড়া ৩১ ধারায় নির্ধারিত সময়ে মামলা নিষ্পত্তি না হলে তার কারণ জানিয়ে সরকারকে অবহিত করারও বিধান রয়েছে। কিন্তু ১৬ বছরেও আইনের এই বিধান পালিত হয়নি। -তথ্যসূত্র : সময় টিভি