কুড়িগ্রামে কনকনে ঠান্ডায় শীতজনিত রোগের প্রার্দুভাব

0
69

খাজা ময়েন উদ্দিন চিশতি:  টানা কয়েক দিনের কনকনে ঠান্ডা ও হিমেল হাওয়ায় শীত জনিত রোগের প্রাদুর্ভাব দেখা দিয়েছে। হাসপাতালে দিন দিন বাড়ছে শীত জনিত রোগীর সংখ্যা।
হিমালয় ঘেঁষা ও ঘন পাহাড় আর বৃক্ষে মোড়ানো আসাম রাজ্যের নিকটবর্তী কুড়িগ্রাম জেলা হওয়ায় এখানে ঠান্ডা আর শীতের তীব্রতা বেশি। এমন পরিস্থিতিতে কুড়িগ্রামের বিস্তীর্ণ চরাঞ্চলের ছিন্নমুল মানুষের বেড়ে চরম দুর্ভোগ। গত দু’দিনে কুড়িগ্রাম সদর হাসপাতালের শিশু ওয়ার্ডে ভর্তি হয়েছে ৩৩জন শিশু। যাদের অধিকাংশের বয়স ৩/৪ বছর। এর মধ্যে কয়েকজন ডায়রিয়ায় আক্রান্ত শিশুর অভিভাবকের সঙ্গে কথা হলে তারা জানান, দু’দিনের শীতের কারণে বমি, ডায়রিয়া শুরু হয়েছে।
শিশু বিভাগের কর্তব্যরত নার্স জানান, সাধ্যমত তারা চিকিৎসার চেষ্টা চালাচ্ছেন।
কুড়িগ্রাম সদর হাসপাতালের আবাসিক মেডিকেল অফিসার (আরএমও) ডাঃ মোঃ শাহানুর রহমান সর্দার জানান, গত দু’দিনের শীতে শিশুরাই বেশি আক্রান্ত হয়েছে। আমাদের হাসপাতালে পর্যাপ্ত পরিমাণ ওষুধ রয়েছে। চিকিৎসা কোনো ত্রুটি হবে না।

কুড়িগ্রামে টানা কয়েক দিনের কনকনে ঠান্ডা ও হিমেল হাওয়ায় শীত জনিত রোগের প্রাদুর্ভাব দেখা দিয়েছে। হাসপাতালে দিন দিন বাড়ছে শীত জনিত রোগীর সংখ্যা।
হিমালয় ঘেঁষা ও ঘন পাহাড় আর বৃক্ষে মোড়ানো আসাম রাজ্যের নিকটবর্তী কুড়িগ্রাম জেলা হওয়ায় এখানে ঠান্ডা আর শীতের তীব্রতা বেশি। এমন পরিস্থিতিতে কুড়িগ্রামের বিস্তীর্ণ চরাঞ্চলের ছিন্নমুল মানুষের বেড়ে চরম দুর্ভোগ। গত দু’দিনে কুড়িগ্রাম সদর হাসপাতালের শিশু ওয়ার্ডে ভর্তি হয়েছে ৩৩জন শিশু। যাদের অধিকাংশের বয়স ৩/৪ বছর। এর মধ্যে কয়েকজন ডায়রিয়ায় আক্রান্ত শিশুর অভিভাবকের সঙ্গে কথা হলে তারা জানান, দু’দিনের শীতের কারণে বমি, ডায়রিয়া শুরু হয়েছে। শীত
শিশু বিভাগের কর্তব্যরত নার্স জানান, সাধ্যমত তারা চিকিৎসার চেষ্টা চালাচ্ছেন।
কুড়িগ্রাম সদর হাসপাতালের আবাসিক মেডিকেল অফিসার (আরএমও) ডাঃ মোঃ শাহানুর রহমান সর্দার জানান, গত দু’দিনের শীতে শিশুরাই বেশি আক্রান্ত হয়েছে। আমাদের হাসপাতালে পর্যাপ্ত পরিমাণ ওষুধ রয়েছে। চিকিৎসা কোনো ত্রুটি হবে না।