প্রধানমন্ত্রী রিকশাভ্যানে, টুঙ্গীপাড়াবাসীর চোখ ছানাবড়া

0
32

শেখ হাসিনা দেশের প্রধানমন্ত্রী। কিন্তু হলে হবে কী, তিনি যে এ মাটিরই সন্তান – সে কথা কখনো ভোলেন না তিনি। তাই তো সময়-সুযোগ পেলেই মাটি ও মানুষের মাঝে হারিয়ে যেতে ভালোবাসেন।

 

সে রকম একটি সুযোগ এসেছিল শুক্রবার সকালে।

 

বৃহস্পতিবার দুই দিনের সফরে গোপালগঞ্জ যান প্রধানমন্ত্রী। সকালে একাদশ জাতীয় রোভার মুটে যোগদান শেষে কিছুটা সময় পান শেখ হাসিনা। আসলে রাজনীতি আর রাষ্ট্রীয় আনুষ্ঠানিকতায় তাঁর প্রতিটি মুহূর্ত কাটে নিদারুণ ব্যস্ততায়। নিজের জন্য সময় করা হয়েই ওঠে না তেমন।

 

এর মধ্যে যখন সময় পেলেন, আর দেরি করলেন না মাটির কন্যা শেখ হাসিনা। দীর্ঘ ১২ বছর পর শুক্রবার সকালে বের হলেন নিজ গ্রামে ঘুরতে।

 

১৯৪৭ সালের ২৮ সেপ্টেম্বর এই টুঙ্গীপাড়া গ্রামে জন্ম শেখ হাসিনার। এখানেই বেড়ে ওঠা।

 

সকাল বেলায় টুঙ্গীপাড়াবাসীর চোখ ছানাবড়া। স্বয়ং প্রধানমন্ত্রী কিনা ঘুরছেন রিকশাভ্যানে করে। এলাকাবাসী ভাবছিল, ভুল দেখছে না তো তারা?

 

না, ভুল দেখেননি টুঙ্গিপাড়া গ্রামবাসী। ভ্যানে একা ছিলেন না শেখ হাসিনা। ছিলেন তার ছোট বোন শেখ রেহানার ছেলে রেদোয়ান মুজিব সিদ্দিকী ববি, তার স্ত্রী পেপি কিভিনিয়াম সিদ্দিক এবং তাদের দুই সন্তান।

 

গ্রামের মানুষ দেখলো, তাদের আদরের হাসু দেশের প্রধানমন্ত্রী হয়েও কী অবলীলায় নেমে এসেছেন তাদের মাঝে!

 

এই-ই তো নেত্রী, যে আছে মাটির কাছাকাছি।