প্রধানমন্ত্রীর আগমন উপলক্ষে কুড়িগ্রামে ব্যাপক প্রস্তুতি

0
30

কুড়িগ্রাম প্রতিনিধি: প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা রবিবার কুড়িগ্রামে আসছেন। বন্যা দুর্গত এলাকা পরিদর্শন শেষে কুড়িগ্রাম রাজারহাট উপজেলার ছিনাই ইউনিয়নের পাঙ্গারাণী লক্ষ্মীপ্রিয়া স্কুল অ্যান্ড কলেজ মাঠে বন্যার্তদের মাঝে ত্রাণ বিতরণ করবেন তিনি।

প্রধানমন্ত্রীর আগমনে রাজারহাটসহ কুড়িগ্রামে চলছে ব্যাপক প্রস্তুতি। পাঙ্গারাণী লক্ষ্মীপ্রিয়া স্কুল অ্যান্ড কলেজ মাঠে শেষ হয়েছে মঞ্চ তৈরির কাজ।

এবারের দ্বিতীয় দফা বন্যায় দেশের উত্তারাঞ্চলের ক্ষতিগ্রস্থ সীমান্ত ঘেষা জেলা কুড়িগ্রাম। বন্যায় জেলার ৯ উপজেলায় ৬২টি ইউনিয়নের প্রায় ৫ লক্ষাধিক মানুষ পানিবন্দী হয়ে পড়েছে। ক্ষতিগ্রস্থ হয়েছে রোপা আমনসহ ৫০ হাজার হেক্টর জমির ফসল। বন্যায় ঘর-বাড়ি তলিয়ে থাকায় পানিবন্দী মানুষ খাদ্য ও বিশুদ্ধ পানির সংকটে পড়েছে।

বন্যা দুর্গত এসব এলাকা পরিদর্শন ও ক্ষতিগ্রস্থ মানুষদের ত্রান সহায়তা দিতে কুড়িগ্রামের রাজারহাটে আসছেন প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা। শেখ হাসিনার সফর সফল করতে চলছে সব রকমের প্রস্তুতি। প্রধানমন্ত্রীর সফর উপলক্ষে খুশি রাজারহাটসহ কুড়িগ্রামের মানুষ।

দেশের প্রাধানমন্ত্রীর হাত থেকে সহায়তা পাওয়ার পাশাপাশি তাকে কাছ থেকে দেখতে পাওয়ার আনন্দে ভাসছে এ এলাকার মানুষজন।

রাজারহাট উপজেলার ছিনাই ইউনিয়ন পরিষদ চেয়ারম্যান নুরুজ্জামান হক বুলু জানান, দেশের প্রধানমন্ত্রী আমার ইউনিয়নে আসছেন এর চেয়ে বেশি পাওয়া আর কিছুই হতে পারে না। বন্যার সব দুঃখ-কষ্ট ভুলে গেছি আমরা। আমি আশা করছি প্রধানমন্ত্রীর সফরের পর আমার ইউনিয়নসহ কুড়িগ্রাম জেলার বন্যা দুর্গত মানুষকে সহায়তার পাশাপাশি ক্ষতিগ্রস্থ বাঁধগুলো দ্রুত সংস্কার ও মেরামত করা হবে।

কুড়িগ্রাম জেলা পরিষদ চেয়ারম্যান ও জেলা আওয়ামী লীগ সাধারণ সম্পাদক মো. জাফর আলী বলেন, প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা কুড়িগ্রামে আসছেন। তিনি কুড়িগ্রামের মানুষকে ভালোবাসেন বলেই বার বার ছুটে আসেন। আমরা জেলা আওয়ামী লীগের পক্ষ থেকে প্রধানমন্ত্রীর এ সফর সফল করতে সব ধরনের ব্যবস্থা গ্রহণ করেছি।

বন্যা দুর্গতদের সহায়তাসহ জেলার উন্নয়নে নানামুখী পদক্ষেপ গ্রহণ করবেন প্রধানমন্ত্রী এমনটাই চাওয়া সাধারণ মানুষসহ এ জেলার জন প্রতিনিধিদের।

বন্যায় জেলার ক্ষতিগ্রস্থ ৫ লক্ষাধিক বানভাসী মানুষের মাঝে ত্রাণ সহায়তা অব্যাহত রাখার পাশাপাশি এসব মানুষের কৃষি ও পুনর্বাসনে বিশেষ বরাদ্দের ব্যবস্থা করবেন প্রধানমন্ত্রী এমনটাই প্রত্যাশা কুড়িগ্রাম জেলার মানুষের।

সময়েরপাতা/রফিক/সৌরভ/খোকন