জনপ্রিয়তার শীর্ষে মোঃ রবিউল করিম রনি

1
11

সময়ের পাতা(সিরাজগঞ্জ) জেলা প্রতিনিধি : আগামী স্থানীয় সরকার নির্বাচনে তাড়াশ উপজেলার ৩নং সগুনা ইউনিয়নকে রোল মডেল হিসাবে গড়ে তোলার সংকল্পে বদ্ধপরিকর জননেত্রী শেখ হাসিনার উন্নয়নের ছোঁয়ায় ঢেলে সাঁজাতে

এবং রাস্তাঘাট, স্কুল,কলেজ,মসজিদ,মাদ্রাসা সহ সকল উন্নয়নে বৈপ্লবিক পরিবর্তন ঘটাতে জনতার পাশে থেকে তৃনমুলের অসহায় মানুষের মুখে হাঁসি ফোটাতে আগামী স্থানীয় সরকার নির্বাচেন (দলীয় প্রতীকে) অংশগ্রহণের জন্য সুযোগ করে দিতে দলীয় নেতা-কর্মীদের সহ সকলের সার্বিক সহযোগিতা ও আশির্বাদ চাইলেন সাবেক বিপ্লবী ছাত্র নেতা ৯০ দশকের রাজপথে লড়াকু সৈনিক মো: রবিউল করিম রনি।

যে কারনে সকলের পছন্দের যোগ্য প্রার্থী মোঃ রবিউল করিম রনি : ৩নং সগুনা ইউনিয়নের তৃণমূল তথা স্থানীয় নেতাকর্মী ও সাধারণ জনগণের একাংশ বলেন, রনি ভাইয়ের শিক্ষাজীবন থেকে শুরু করে বিগত রাজনৈতিক জীবনে কখনো কোনদিন কোন মুহুর্তের জন্য হলেও ইচ্ছা বা অনিচ্ছায় মনের অজান্তেও কোনপ্রকার নেশাকে স্পর্শ করে দেখেন নি।

এমনকি রনি ভাইয়ের জীবনে কখনো কোন কোন মানুষের সঙ্গে অসদাচরণ করেননি।তিনি সকলের সঙ্গে সবসময়ই বিনম্র শ্রদ্ধায় কথা বলেন। তিনি সবসময়ই সবাইকে শিক্ষকের আসনে দেখন এবং নিজেকে সকলের ছাত্র মনে করেন বলে একাধিক সুত্রমতে তথ্য প্রমান পাওয়া গেছে।

তাড়াশ উপজেলার একজন রাজনৈতিক বিশ্লেষক বলেন, মো: রবিউল করিম রনি স্কুল জীবন থেকে বাস্তবেই অতিরিক্ত সৎ ও সাহসী,মেধাবী এবং সু- শিক্ষায় শিক্ষিত। তিনি রাজনৈতিক জীবনেও অনেক গুরুত্বপূর্ণ পদে দায়িত্ব সততা ও সফলতার সঙ্গে পালন করে আসছেন।

একজন বীর মুক্তিযোদ্ধা বলেন,রবিউল করিম রনি জন্ম ও পারিবারিক সু্ত্রেই খাঁটি আওয়ামি বীর মুক্তিযুদ্ধা পরিবারের সন্তান। একজন শিক্ষক বলেন,রবিউল করিম রনি শুধু বঙ্গবন্ধুর আদর্শেরই শৈনিক নয় বরং প্রকৃত সু-শিক্ষার আদর্শের সৈনিক। তিনি আরো বলেন,আমি যতদুর জানি রনি একজন প্রকৃত মানবতার সেবক।

আমি তার জীবনের জন্য প্রতিটি পদে পদে সবসময়ই সফলতা কামনা করি। কারন রবিউল করিম রনির নিকট দলমত,জাতিধর্ম, বর্ণ ভেদাভেদ নেই।যে কারনে সকলেই তাকে মন থেকেই ভালবাসেন এবং স্নেহ করেন।

একজন মসজিদের ইমাম বলেন,সমাজ,দেশ ও জাতির উন্নয়নের কথা বিবেচনায় এনে প্রতিটি ইউনিয়ন ও উপজেলা চেয়ারম্যান পদে স্বচ্ছ ইমেজর নেতার নেতৃত্ব প্রয়োজন।

একজন সোসাল মিডিয়ার বিশিষ্ট বিশ্লেষক বলেন,আগামী স্থানীয় সরকার নির্বাচন থেকে শুরু করে সকল পর্যায়েই দুর্নীতিমুক্ত, নেশা,মদ ও মাদকমুক্ত নেতাদেরকে নির্বাচিত প্রতিনিধি হিসেবে দেখতে চায় সাধারণ জনগণ।