সরকার শিক্ষা খাতের ব্যয়কে বিনিয়োগ হিসেবে বিবেচনা করে : প্রধানমন্ত্রী

0
21

ডেস্ক রিপোর্ট : প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা বলেছেন, শিশুদের সুশিক্ষিত করে গড়ে তোলার বিকল্প নেই। আর তাই শিক্ষা খাতের ব্যয়কে সরকার বিনিয়োগ হিসেবে বিবেচনা করে।

রোববার সকালে রাজধানীর ওসমানী স্মৃতি মিলনায়তনে জাতীয় প্রাথমিক শিক্ষা সপ্তাহের উদ্বোধনী বক্তব্যে একথা বলেন প্রধানমন্ত্রী।

আজ থেকে শুরু হচ্ছে জাতীয় প্রাথমিক শিক্ষা সপ্তাহ-২০১৭। এ উপলক্ষে ওসমানী স্মৃতি মিলনায়তনে শিক্ষা সপ্তাহের আনুষ্ঠানিক উদ্বোধন করেন প্রধানমন্ত্রী।

বিত্তবানদের নিজ এলাকার শিক্ষা প্রতিষ্ঠানে অবদান রাখার আহ্বান জানিয়ে প্রধানমন্ত্রী বলেন, শিক্ষার উন্নয়নে সরকারের পাশাপাশি বিত্তবানদেরও এগিয়ে আসতে হবে। সবাইকে শিক্ষার আলোয় আলোকিত করতে হবে। সরকার বিনামূল্যে বই দিচ্ছে জানিয়ে প্রধানমন্ত্রী বলেন, পৃথিবীর কোন দেশ এত বই বিনামূল্যে দেয় না। পাঠ্যপুস্তকেও ডিজিটালে রূপান্তরিত করা হচ্ছে। মাল্টিমিডিয়া ক্লাসরুম চালু করা হচ্ছে।

শেখ হাসিনা বলেন, শিক্ষাখাতে আমরা যেই বরাদ্ধ রাখছি তাকে ব্যয় বলছি না। কারণ আমাদের ছেলে-মেয়েরা শিক্ষা অর্জন করে দেশকে গড়বে। জাতিকে উন্নতি ও জ্ঞানের শিখরে নিয়ে যাবে- এজন্য আমরা শিক্ষাখাতের বরাদ্দকে ব্যয় নয়, বিনিয়োগ হিসেবেই দেখি।

তিনি বলেন, আমাদের শিক্ষা ব্যবস্থায় সকল ধর্মের বিষয়ে আলাদা শিক্ষা ব্যবস্থা নেয়া হয়েছে। যার যার ধর্ম শিক্ষা সে গ্রহণ করবে। কিন্তু সামগ্রিক শিক্ষা ও জ্ঞান অর্জনে সমান নীতি গ্রহণ করা হয়েছে।

শেখ হাসিনা বলেন, প্রাথমিক সমাপনী পরীক্ষায় প্রায় শতভাগ উত্তীর্ণ হচ্ছে। আমি আশা করি, ঐক্যবদ্ধ প্রচেষ্টায় শিক্ষাখাতে উন্নয়নের মাধ্যমে আমরা সর্বকালের সর্বশ্রেষ্ঠ বাঙালি জাতির পিতা বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমানের দারিদ্র্যমুক্ত ও নিরক্ষরতামুক্ত সুখী-সমৃদ্ধ স্বপ্নের ‘সোনার বাংলা’ নির্মাণ করতে সক্ষম হব।