প্রথম গেটের সামনের ময়লা পরিস্কার, হচ্ছে লেক ও বসার জায়গাঃউপাচার্য

0
917
মুহিউদ্দিন নুর, দিনাজপুর প্রতিনিধিঃআজ হাজী মোহাম্মদ দানেশ বিজ্ঞান ও প্রযুক্তি বিশ্ববিদ্যালয়ের মাননীয় উপাচার্য প্রফেসর ড. মুঃ আবুল কাসেম বিশ্ববিদ্যালয়ের খেলার মাঠ , জিয়াউর রহমান হলের নবনির্মিত বিদ্যুৎ স্টেশন ও বিশ্ববিদ্যালয়ের সামনের ময়লা পরিস্কার কার্যক্রম পরিদর্শন করেন। প্রথমে তিনি যান জিয়াউর রহমান হলের

vc sir 11

নবনির্মিত বিদ্যুৎ স্টেশন দেখতে , এ সময় উপাচার্য বলেন আগের মেশিনটি ছিল ১০০ কেবি ক্ষমতাসম্পন্ন , আর এখন প্রায় সাড়ে সাত লাখ টাকা ব্যয় করে লাগানো হয়েছে ২৫০ কেবি ক্ষমতাসম্পন্ন দুটি অত্যাধুনিক মেশিন। তাই এই হলে বিদ্যুতের সমস্যা হওয়ার আর সম্ভাবনা নেই বলে আশা করি । তবে তিনি ছাত্রদের হিটার ব্যবহার না করার জন্য আহবান জানান , তিনি বলেন খুব শিঘ্রই এই হলে ডাইনিংয়ের ব্যবস্থা করা হবে । এরপর তিনি যান খেলার মাঠ পরিদর্শনে , সেখানে উপস্থিত খেলোয়াররা তাদের বিভিন্ন ধরনের সমস্যার কথা উপাচার্যকে বলেন, তাদের কথা শুনে তিনি সাথে সাথে মাঠের জঙ্গল ও আগাছা পরিস্কার করার নির্দেশ দেন এবং দুপুরের পর তা পরিস্কার করার কাজ শুরু হয় । তিনি বলেন অনেক আগে আমি ঘাস কাটার মেশিনের ফাইলে সাইন করেছি , সেটি এখনো কেন আসেনি তা নিয়ে সংশ্লিষ্ট কর্মকর্তার কাছে কারণ জানতে চান। সবশেষে তিনি যান বিশ্ববিদ্যালয়ের প্রথম ও দ্বিতীয় গেটের মাঝের ময়লার স্তূপ সরানোর কাজ পরিদর্শন করতে । তিনি বলেন এটি সুন্দর করে পরিস্কার করার পর লেকের মতো করে তৈরি করা হবে পাশাপাশি এখানে লাইটিং ও বসার জায়গার ও ব্যবস্থা করা হবে । তিনি আরও বলেন আমি শুধু পরিদর্শন করে এবং সুন্দর সুন্দর কথা বলে চুপ থাকবোনা


vc sir 9

। যে নির্দেশনা গুলো আমি দেই তা বাস্তবায়ন হলো কিনা সেটাও নিয়মিত তদারকি করবো। তিনি যোগ করেন ইতোমধ্যে নিম্নমানের
ইট ফিরিয়ে দিয়ে নতুন ইট আনা হয়েছে , ময়লা পরিস্কার কাজ শুরু হয়েছে , আস্তে আস্তে সময় দিলে সব করবো , এ জন্য বিশ্ববিদ্যালয়ের পরিবেশ ভালো রাখা সবার দায়িত্ব , আমাকে কাজ করতে দিতে হবে । উপাচার্য বলেন ময়লা সরানোর পর কাল বিকেলে আমি এখানকার সকল ব্যবসায়ী ও দোকানিদের নিয়ে আমি বসবো , তাদেরকে অনুরোধ করবো যেন এখানে আর ময়লা ফেলা না হয়, পাশাপাশি সাইনবোর্ড ও দেয়া হবে ।