সাত খুন মামলার রায় সোমবার

0
31

সময়েরপাতাঃ  নারায়ণগঞ্জের আলোচিত সাত খুন মামলার রায় ঘোষণা করা হবে আগামীকাল। সাক্ষী ও যুক্তিতর্কে যথেষ্ট প্রমাণ রয়েছে দাবি করে আইনজীবী ও নিহতদের স্বজনদের প্রত্যাশা বিচারে আসামিদের সর্বোচ্চ সাজা হবে। তবে এজহারভুক্ত অনেক আসামি এখনো পলাতক থাকায় নিরাপত্তা নিয়া শঙ্কার কথাও বলছেন স্বজনরা।সাত খুন

২০১৪ সালের ২৭ এপ্রিল, ঢাকা-নারায়ণগঞ্জ লিংক রোড থেকে অপহৃত হন নারায়ণগঞ্জ সিটির প্যানেল মেয়র নজরুল ইসলাম ও আইনজীবী চন্দন সরকারসহ সাতজন। অপহরণের ৩দিন পর শীতলক্ষ্যায় একে একে ভেসে উঠে সাতজনের লাশ।

পরে নারায়ণগঞ্জ সিটি করেপারেশনের তৎকালীন কাউন্সিলর নূর হোসেনসহ ৬ জনকে আসামি করে ফতুল্লা থানায় হত্যা মামলা দায়ের করেন নজরুলের স্ত্রী। আর লাশ উদ্ধার হওয়ার পর ১১ মে আইনজীবী চন্দন সরকারকে হত্যার দায়ে অজ্ঞাত আসামিদের বিরুদ্ধে আরেকটি হত্যা মামলা করে চন্দনের পরিবার।নারায়নগঞ্জ সাত খুন

এক পর্যায়ে সাত খুনের সঙ্গে জড়িত অভিযোগে নাম আসে র‌্যাবের কয়েকজন কর্মকর্তার। নানা নাটকীয়তার পর উচ্চ আদালতের নির্দেশে ২০১৪ সালের ১৬ ও ১৭মে গ্রেফতার করা হয় র‌্যাবের লে কর্নেল তারেক সাঈদসহ র‌্যাবের তিন কর্মকর্তাকে। আর ভারতে পালিয়ে গেলেও ২০১৫ সালের ৩ নভেম্বর যশোর সীমান্ত দিয়ে বাংলাদেশ পুলিশের কাছে এই মামলার প্রধান আসামি নূর হোসেনকে হস্তান্তর করে কলকাতা পুলিশ।

২১ আসামির দেয়া ১৬৪ ধারায় জবানবন্দি ও নানা সাক্ষ্য প্রমাণের উপর দীর্ঘ শুনানি শেষে মামলার রায়ের তারিখ ঘোষণা করেন জেলা ও দায়রা জজ আদালতের বিচারক সৈয়দ এনায়েত হোসেন।

এদিকে এজহারভুক্ত অনেক আসামি এখনো ধরাছোঁয়ার বাইরে থাকায় নিরাপত্তা নিয়ে শঙ্কা প্রকাশ করেছেন নিহতের স্বজনেরা।