বেসরকারিভাবে আইভী মেয়র নির্বাচিত

0
45

খোকন/সৌরভ: টানা দ্বিতীয়বার নারায়ণগঞ্জের নগর প্রধানের আসনে বসার অধিকার পাচ্ছেন ডা. সেলিনা হায়াৎ আইভী। এবারো নগরবাসী বেছে নিয়েছেন আলোচিত এই মেয়রপ্রার্থীকে।

নারায়ণগঞ্জ সিটি করপোরেশন নির্বাচনে এখন পর্যন্ত প্রাপ্ত ফলে বিএনপি মনোনীত প্রার্থী সাখাওয়াত হোসেন খানের চাইতে বিপুল ভোটে এগিয়ে রয়েছে আওয়ামী লীগ প্রার্থী ডা. সেলিনা হায়াৎ আইভী।

এখন পর্যন্ত ১৭৪ কেন্দ্রের ফল পাওয়া গেছে। এতে ডা. সেলিনা হায়াৎ আইভী পেয়েছেন ১৭৪৬০২ ভোট ও সাখাওয়াত হোসেন খান পেয়েছেন ৯৬৭০০ ভোট।

প্রথমবারের মতো ক্ষমতাসীন আওয়ামী লীগের নৌকা প্রতীক নিয়ে লড়াই করেছেন আইভী। মাত্র কয়েক দিন সাবেক হয়ে যাওয়া নারায়ণগঞ্জের নবনির্বাচিত মেয়রের মূল লড়াই হয় ধানের শীষ প্রতীকের বিএনপির প্রার্থী অ্যাডভোকেট সাখাওয়াত হোসেন খানের সঙ্গে। এ ছাড়া আরো ৫টি রাজনৈতিক দলের মেয়র প্রার্থী হিসেবে জয়ের লড়াই করেছেন কোদাল প্রতীকে বিপ্লবী ওয়ার্কার্স পার্টির মাহবুবুর রহমান ইসমাইল, মিনার প্রতীকে ইসলামী ঐক্যজোটের মুফতি এজহারুল হক, ইসলামী আন্দোলন বাংলাদেশের মুফতি মাছুম বিল্লাহ, এলডিপির কামাল প্রধান এবং কল্যাণ পার্টির রাশেদ ফেরদৌস।

স্থানীয় আওয়ামী লীগের নানা টানাপোড়নের মধ্য দিয়ে জয় নিশ্চিত করেছেন আইভী। পারিবারিক ও রাজনৈতিক দ্বন্দ্বের মাঝেও প্রমাণ করেছেন নারায়ণগঞ্জবাসী তাকে ভালোবাসে।

নাসিক নির্বাচনের প্রার্থী বাছাই পর্ব থেকে নির্বাচনী মাঠে প্রচারণায় নিজ দলের স্থানীয় নেতাদের নানা প্রতিবন্ধকতার সম্মুখীন হতে হয় আইভীকে। এতো কিছুর মাঝে ধারাবাহিকতা রেখে তিনি প্রমাণ করেছেন নারায়ণগঞ্জবাসী তাকে ভালোবাসে।

আওয়ামী লীগ সমর্থিত মেয়র প্রার্থী ডা. সেলিনা হায়াৱ আইভী এবং বিএনপি সমর্থিত প্রার্থী অ্যাডভোকেট মো. সাখাওয়াত হোসেন খান সাংবাদিকদের কাছে এ নির্বাচনে ভোটগ্রহণ সুষ্ঠু হয়েছে বলে একমত পোষণ করেন।