পুলিশকেও ধাক্কা মেরে বাস থেকে ফেলে দিল হেলপার!

0
19

সময়ের পাতা, ডট কম.অন্যায্য ভাড়া আদায়ের বিরুদ্ধে প্রতিবাদের কারণে জনসাধারণের ওপর বাসের হেলপার-চালকদের চড়াও হওয়ার খবর মিলছিলো। এবার বাসের এক হেলপার ধাক্কা দিয়ে ফেলে দিলো পুলিশেরও দুই সদস্যকে। এতে আহত হয়ে হাসপাতালে যেতে হয়েছে এক কনস্টেবলকে।বুধবার (১৯ এপ্রিল) সকাল সাড়ে ৮টার দিকে রাজধানীর মিরপুর ১ নম্বর এলাকা থেকে মিরপুর ১৪ নম্বরে পুলিশ লাইন্সে ফেরার সময় ওই দুই পুলিশ সদস্যকে ধাক্কা মেরে ফেলে দেওয়া হয়। প্রত্যক্ষদর্শীরা জানান, মিরপুর ১ নম্বরে একটি পরীক্ষায় ডিউটি পেয়েছিলেন ওই দু’জনসহ চার পুলিশ সদস্য। পুলিশ লাইন্স থেকে আসা এ পুলিশ সদস্যদের আপাতত লাগবে না জানিয়ে ফেরত পাঠানো হলে তারা আবার মিরপুর ১৪ নম্বরে ফেরত যাচ্ছিলেন।এ চারজন সেখান থেকে মিরপুর-সাভার-চন্দ্রা রুটে চলাচলকারী ইতিহাস পরিবহনের একটি বাসে উঠতে চাইলে সেটিকে ‘ডাইরেক্ট’ সার্ভিস বলে তাদের উঠতে বাধা দেয় হেলপার। তবে দুই পুলিশ সদস্য আগেই উঠে গেলে তাদের চলন্ত গাড়ি থেকেই ধাক্কা দিয়ে ফেলে দেয় ওই হেলপার।এতে নূর আলী নামে এক কনস্টেবলের হাত ছিলে যায়, জখম হয় তার শরীরের আরও কয়েকটি অংশে। ছিঁড়ে যায় তার বেল্ট।তৎক্ষণাৎ তাকে উদ্ধার করে পুলিশ লাইন্স হাসপাতালে নিয়ে যাওয়া হয়।এ ঘটনার খবর পেলে বেপরোয়া বাসটিকে মিরপুর ১০ নম্বর এলাকায় পাকড়াও করেন ঢাকা মহানগর ট্রাফিক পুলিশের পল্লবী জোনের টিআই আবুল কালাম আজাদ।আজাদ জানান, ঢাকা মেট্রো ব-১১-৭৪৭৯ নম্বরের বাসটিকে ডাম্পিংয়ে পাঠানো হয়েছে।আটক করা হয়েছে বাসের চালককেও।অন্যায্য ভাড়া আদায় বন্ধে পরিবহনগুলোর কথিত ‘সিটিং’ সার্ভিস বন্ধে দিন চারেক আগে নির্দেশনা জারির পর থেকে নগরীর বিভিন্ন স্থানেই ‘মাস্তান’ ধরিয়ে জনগণের ওপর পরিবহন শ্রমিকদের হাত তোলার খবর পাওয়া যাচ্ছিল। তাদের বেপরোয়া আচরণের সর্বশেষ নজির ওই দুই পুলিশ সদস্য।