‘আর একটি টাকাও জামায়াতের হাতে যাবে না’

0
61

সময়ের পাতা :  জামায়াতমুক্ত করতে ইসলামী ব্যাংকের ব্যবস্থাপনায় পরিবর্তনের বিষয়ে প্রতিষ্ঠানটির নবনিযুক্ত পরিচালক ও ইসলামিক ফাউন্ডেশনের মহাপরিচালক সামীম মোহাম্মদ আফজাল বলেছেন, আমরা কারও চাকরিতে হাত দেবো না। শুধু বলবো, মিটিং-মিছিল করতে যাবেন না। আর এসএমই ঋণ হিসাবে ব্যাংকটি থেকে যে টাকা জামায়াতের হাতে যেতো, এখন আর একটি টাকাও তাদের হাতে যাবে না।সামীম মোহাম্মদ আফজাল
শনিবার সকালে রাজধানীর গুলশানের লেক শোর হোটেলে আয়োজিত এক গোলটেবিল বৈঠকে তিনি এ কথা বলেন। ‘জঙ্গিবাদ ও ব্যাংকিং খাতের সংস্কার’ বিষয়ক এ গোলটেবিল বৈঠকের আয়োজন করে রিজিওনাল অ্যান্টি টেরোরিস্ট রিসার্চ ইনস্টিটিউটের (রাত্রি)। সামীম মোহাম্মদ আফজাল বলেন, ইসলামী ব্যাংকে পরিবর্তন এসেছে। আমরা কারও চাকরিতে হাত দেবো না। শুধু বলবো, মিটিং-মিছিল করতে যাবেন না। অনেকের মধ্যে পরিবর্তনও হয়েছে। ৬ মাসের মধ্যে এটা একেবারে পরিবর্তন হয়ে যাবে। আশা করি, ব্যাংকের কোনো কর্মকর্তা জামায়াতের মিছিল-মিটিংয়ে যাবেন না। একইসঙ্গে মওদুদী দর্শনের মাধ্যমে রাষ্ট্র ক্ষমতা দখলের চেষ্টা ব্যর্থ হবে। তিনি বলেন, ইসলামী ব্যাংকের ১৭-১৮ জন পরিচালকের মধ্যে স্বতন্ত্র পরিচালক আছেন ৭-৮ জন। বাংলাদেশে আরও যে ৫৫টা ব্যাংক আছে, কোনোটাতেই এতো বেশি স্বতন্ত্র পরিচালক নেই।

যে কারণে ইসলামী ব্যাংকের পরিচালনা পর্ষদ অনেক শক্তিশালী। নতুন এ পরিচালক সাফ বলে দেন, ইসলামী ব্যাংকে জনগণের আমানত ৭৫ হাজার কোটি টাকার ৪ শতাংশ যেতো জামায়াতের হাতে এসএমই ঋণ হিসাবে।

আমরা সেটা চিহ্নিত করেছি। আর একটি টাকাও জামায়াতের হাতে যাবে না। গোলটেবিল বৈঠকে অংশ নিয়েছেন ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়ের ইমেরিটাস অধ্যাপক একে আজাদ চৌধুরী, জগন্নাথ বিশ্ববিদ্যালয়ের উপাচার্য অধ্যাপক মীজানুর রহমান, ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়ের অধ্যাপক ড. আনোয়ার হোসেন, ড. হাফিজুর রহমান কাজন, ড. জিনাত হুদা, একাত্তরের ঘাতক দালাল নির্মূল কমিটির ভারপ্রাপ্ত সভাপতি শাহরিয়ার কবির, ড. নাজমুল আহসান কলিমউল্লাহ, সাবেক সচিব ও কূটনীতিক ওয়ালীউর রহমান, বাংলাদশ প্রতিদিন সম্পাদক নঈম নিজাম, বাংলাদেশ সংবাদ সংস্থার (বাসস) ব্যবস্থাপনা পরিচালক (এমডি) আবুল কালাম আজাদ, সাংবাদিক প্রণব সাহা, সাংবাদিক নেতা শাবান মাহমুদ প্রমুখ। সঞ্চালনা করেন টিভি চ্যানেল ‘নিউজ২৪’ এর আনোয়ার সাদি।