আজ তালিকা দেবে বিএনপি

0
25

সময়ের পাতাঃ তিনজনের নাম অভিন্ন রেখে রাষ্ট্রপতির সঙ্গে সংলাপের ডাক পাওয়া জোটের শরিক দলগুলো আজ মঙ্গলবার নামের তালিকা নির্বাচন কমিশন (ইসি) গঠনে সার্চ কমিটির কাছে জমা দেবে বিএনপি নেতৃত্বাধীন ২০ দলীয় জোট। সোমবার রাতে গুলশানে বিএনপি চেয়ারপারসন খালেদা জিয়ার রাজনৈতিক কার্যালয়ে জোটের শরিক বাংলাদেশ জাতীয় পার্টি (বিজেপি), লিবারেল ডেমোক্রেটিক পার্টি (এলডিপি), খেলাফত মজলিস, বাংলাদেশ ন্যাপ, মুসলিম লীগ ও জমিয়তে উলামায়ে ইসলাম দলের নেতাদের সঙ্গে বৈঠকের পর এ তালিকা চূড়ান্ত করা হয়। বিএনপির মহাসচিব মির্জা ফখরুল ইসলাম আলমগীরের সঙ্গে বৈঠকে তালিকা চূড়ান্ত করতে গিয়ে পাঁচটি নামের মধ্যে অন্তত তিনটি নাম অভিন্ন রাখা হয়েছে। একাধিক সূত্র এ তথ্য নিশ্চিত করেছে। সংশ্লিষ্ট দলগুলোর নেতারা চূড়ান্ত করা তালিকা আজ সকালে নিজ নিজ দলের পক্ষে জমা দেবেন।

একটি অসমর্থিত সূত্র জানিয়েছে, বিএনপির পাঁচজনের তালিকায় রয়েছেন সাবেক মন্ত্রিপরিষদসচিব ড. সাদত হোসাইন, স্থানীয় সরকার বিশেষজ্ঞ তোফায়েল আহমেদ, অধ্যাপক দিলারা চৌধুরী, আলী ইমাম মজুমদার ও সাবেক সচিব মোফাজ্জল। তবে এ তালিকা সম্পর্কে গতকাল রাত ১টা পর্যন্ত নিশ্চিত হওয়া যায়নি।

গতকাল রাত সাড়ে ১২টায় খালেদা জিয়ার সঙ্গে কথা বলে মির্জা ফখরুল সাংবাদিকদের জানান, সার্চ কমিটি নিয়ে হতাশ হলেও তাদের আহ্বানে সাড়া দিয়ে নতুন ইসি গঠনে নাম প্রস্তাবের সিদ্ধান্ত নিয়েছে বিএনপি। কাল (মঙ্গলবার) দুপুরে পাঁচজনের নাম প্রস্তাব করে চিঠি পাঠানো হবে।

মির্জা ফখরুল বলেন, ‘আমরা বিএনপির পক্ষ থেকে সিদ্ধান্ত নিয়েছি যে নাম প্রস্তাব করব। ২০ দলের শরিক দলগুলোর সঙ্গেও আমরা কথা বলেছি। সবাই আমরা নাম প্রস্তাব করছি। রাষ্ট্রপতি যাদের ডেকেছেন, তারা নিজেরা দলের পক্ষে তাদের নামগুলো পৌঁছে দেবে। ’

নামের তালিকা যাতে কোনোভাবে প্রকাশ না পায় এ জন্য কঠোর গোপনীয়তা অবলম্বন করতে বলা হয় নেতাদের। এ জন্য গতকাল বিএনপির স্থায়ী কমিটির মুলতবি বৈঠক হওয়ার কথা থাকলেও তা অনুষ্ঠিত হয়নি। একটি সূত্র জানায়, গত রবিবার রাতে গুলশানের কার্যালয়ে স্থায়ী কমিটির বৈঠকের পর মির্জা ফখরুলসহ দলের দুজন সিনিয়র নেতার সঙ্গে একান্তে বৈঠক করেন খালেদা জিয়া। সেখানেই নামের তালিকা চূড়ান্ত করে রাখা হয়। ওই সূত্রের দাবি, গত ১৮ ডিসেম্বর রাষ্ট্রপতির সঙ্গে সংলাপে বিএনপির পক্ষ থেকে যে নামের তালিকা দেওয়া হয়েছিল সেখান থেকেই পাঁচজনের চূড়ান্ত তালিকা করেন বিএনপিপ্রধান। গতকাল তা জোটের শরিক দলগুলোকে জানানো হয়। ওই তালিকা থেকে অন্তত তিনজনকে শরিক দলগুলোর তালিকায় রাখার জন্য বলা হয়।

এর আগে গতকাল বিকেলে নয়াপল্টনে বিএনপির কেন্দ্রীয় কার্যালয়ে ২০ দলীয় জোটের মহাসচিব পর্যায়ের বৈঠক শেষে উপস্থিত সাংবাদিকদের এলডিপির মহাসচিব রেদোয়ান আহমেদ বলেন, বিএনপি ছাড়াও ২০ দলীয় জোটের শরিক ছয়টি নিবন্ধিত দল, যারা রাষ্ট্রপতির সঙ্গে সংলাপের আমন্ত্রণ পেয়েছিল, তারা আলাদাভাবে সার্চ কমিটির কাছে ইসি গঠনে নাম প্রস্তাব করবে।

নয়াপল্টনের কার্যালয়ে মির্জা ফখরুলের সভাপতিত্বে ২০ দলীয় জোটের মহাসচিবদের বৈঠক হয়। বৈঠকেই এ সিদ্ধান্ত নেওয়া হয়। বৈঠকে সার্চ কমিটির পক্ষ থেকে আসা চিঠির বিষয়বস্তু নিয়েও আলোচনা হয়। বিএনপি মহাসচিব এ ব্যাপারে নিজ দলের অবস্থানের কথা শরিক নেতাদের জানান। শরিকরাও তাঁদের মতামত দেন।

বৈঠক শেষে এ বিষয়ে জানতে চাইলে মির্জা ফখরুল আনুষ্ঠানিকভাবে সাংবাদিকদের বলেন, ‘আপনারা যেভাবে খোঁজখবর নিচ্ছেন তাতে জেনে যাবেন। রাজনৈতিক দলগুলো মেশিনের মতো কাজ করে। ঠিক সময়ের মধ্যে হয়ে যায়।’

বৈঠকে থাকা জোটের এক নেতা কালের কণ্ঠকে জানান, আলোচনার একপর্যায়ে জোটের নেতৃত্বে থাকা দলের পক্ষ থেকে জানানো হয়েছে, ‘আপনারা যে নামই প্রস্তাব করেন তাতে যেন সাদৃশ্য থাকে। এতে করে রাজনৈতিক বিরোধী পক্ষ বলতে পারবে না—২০ দলীয় জোটের মধ্যেই তো মতের মিল নেই। তাই আমরা নিজেদের মধ্যে আলোচনা শেষে নাম প্রস্তাব করব। ’

পরে রেদোয়ান আহমেদ বলেন, ‘সার্চ কমিটির কাছে নাম পাঠানোর ব্যাপারে আমরা ঐকমত্যে পৌঁছেছি। আমরা নাম পাঠাচ্ছি। কোন দলের কী নাম, কখন, কিভাবে যাবে তা সিদ্ধান্ত হবে আজকে (সোমবার) রাতে। ’

বৈঠকে অন্যদের মধ্যে খেলাফত মজলিসের আহমেদ আবদুল কাদের, ন্যাপের গোলাম মোস্তফা ভুঁইয়া, লেবার পার্টির হামদুল্লাহ আল মেহেদি, বিজেপির সালাহউদ্দিন মতিন সউদ, ইসলামী ঐক্যজোটের মাওলানা আবদুল করীম খান, কল্যাণ পার্টির এম এম আমিনুর রহমান, এনপিপির মোস্তাফিজুর রহমান মোস্তফা, মুসলিম লীগের শেখ জুলফিকার বুলবুল চৌধুরী, জমিয়তে উলামায়ে ইসলামের মাওলানা মহিউদ্দিন একরাম, জাগপার খন্দকার আসাদুর রহমান খান, ইসলামিক পার্টির আবুল কাশেম, পিপলস লীগের সৈয়দ মাহবুব হোসেন, সাম্যবাদী দলের সাঈদ আহমেদ ও এনিডিপির মন্জুর হোসেন ঈসা উপস্থিত ছিলেন। বৈঠকের শেষের দিকে বিএনপির স্থায়ী কমিটির সদস্য