হাবিপ্রবি পরিবার তাদের সবটুকু দিয়ে বন্যার্তদের সহযোগিতার জন্য কাজ করে যাচ্ছে

0
81

মুহিউদ্দিন নুর,দিনাজপুর প্রতিনিধিঃ হাজী মোহাম্মদ দানেশ বিজ্ঞান ও প্রযুক্তি বিশ্ববিদ্যালয়ে আজ যথাযথ মর্যাদায় পালিত হলো জাতীয় শোক দিবস। কর্মসূচির অংশ হিসেবে সূর্যোদয়ের সাথে সাথে একাডেমিক ভবনের সম্মুখে জাতীয় পতাকা অর্ধনমিত করে উত্তোলন করা হয়। সকাল ৯টায় উপাচার্য প্রফেসর ড. মু. আবুল কাসেম এর নেতৃত্বে বিশ্ববিদ্যালয়ের শিক্ষক, ছাত্র-ছাত্রী, কর্মকর্তা ও কর্মচারীগণ কালো ব্যাচ ধারণ করেন। এরপর এক বিশাল শোক

vc sir32

র‌্যালি বিশ্ববিদ্যালয় ক্যাম্পাস প্রদক্ষিণ করে।র‌্যালি শেষে ভিসি প্রফেসর ড. মু. আবুল কাসেম বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমানের বিদেহীআত্মার প্রতি শ্রদ্ধা জানাতে তাঁর প্রতিকৃতিতে পুষ্পমাল্য অর্পণ করেন। এরপর ক্রমান্বয়ে পুষ্পমাল্য অর্পণ করেন- বঙ্গবন্ধু পরিষদ, শিক্ষক সমিতি, মুক্তিযুদ্ধের চেতনা ও মূল্যবোধে বিশ্বাসী শিক্ষক পরিষদ, প্রগতিশীল শিক্ষক ফোরাম, প্রগতিশীল কর্মকর্তা পরিষদ, বিশ্ববিদ্যালয়ের হলসমূহ, বাংলাদেশ ছাত্রলীগ হাবিপ্রবি শাখা, প্রগতিশীল কর্মচারী পরিষদসহ বিশ্ববিদ্যালয়ের বিভিন্ন সংগঠন।এরপর অডিটোরিয়াম এক এ ছাত্র পরামর্শ ও নির্দেশনা শাখার পরিচালক প্রফেসর ডা. এস.এম. হারুন-উর-রশীদ এর সভাপতিত্বে দিবসটির তাৎপর্যের উপর আলোচনা সভা অনুষ্ঠিত হয়। উক্ত আলোচনা সভায় প্রধান অতিথির বক্তব্য রাখেন বিশ্ববিদ্যালয়ের ভিসি প্রফেসর ড. মু. আবুল কাসেম। ‘বঙ্গবন্ধু হত্যা: তৎকালীন ও পরবর্তী রাজনৈতিক গতি প্রকৃতি’ শিরোনামের উপর মূল প্রবন্ধ উপস্থাপন করেন উক্ত শোক দিবসের মুখ্য আলোচক বাংলাদেশ উন্মুক্ত বিশ্ববিদ্যালয়, গাজীপুর এর প্রফেসর ড. মমতাজউদ্দীন পাটোয়ারী। এতে সঞ্চালনা করেন বিশ্ববিদ্যালয়ের ছাত্র পরামর্শ ও নির্দেশনা বিভাগের  সহকারি পরিচালক ড. রাশেদুল ইসলাম।

এদিকে জাতীয় শোক দিবস উপলক্ষে বিকেলে আলোচনা সভার আয়োজন করে নবগঠিত বঙ্গবন্ধু পরিষদ হাবিপ্রবি শাখা । উক্ত আলোচনা সভায় প্রধান অতিথি হিসেবে উপস্থিত ছিলেন বিশ্ববিদ্যালয়ের মাননীয় উপাচার্য প্রফেসর ড. মু. আবুল কাসেম।এছাড়াও আরো উপস্থিত ছিলেন বঙ্গবন্ধু পরিষদের আহবায়ক প্রফেসর ডা. মো: ফজলুল হক,

vc sir33

প্রফেসর ড. মিজানুর রহমান,প্রফেসর ড. শাহাদাৎ হোসেন খান,প্রফেসর ড. ফাহিমা খানম, প্রফেসর ড. শ্রীপতি শিকদার, রেজিস্টার প্রফেসর ড. সফিউল আলম, ড. ইমরান পারভেজ সহ বঙ্গবন্ধু পরিষদ হাবিপ্রবি শাখার অন্যান্য নেত্রীবৃন্দ। আলোচনা অনুষ্ঠানটি সঞ্চালনা করেন বঙ্গবন্ধু পরিষদের  সদস্য সচিব ও সহকারি প্রক্টর সৌরভ পাল চৌধুরী জর্জ।আলোচনা সভা শেষে ক্যাম্পাস থেকে ত্রান নিয়ে দিনাজপুরের  বীরগঞ্জ উপজেলার দুর্গম এলাকা  নিজপাড়া ও জেলেপাড়ায়  বিতরণ করা হয়। শোক দিবস উপলক্ষে আয়োজিত মিলাদ মাহফিলের তবারকের ৩০০ প্যাকেট এবং বঙ্গবন্ধু পরিষদ হাবিপ্রবি শাখার পক্ষ থেকে ১০০০ প্যাকেট ত্রান সামগ্রী বিতরন করা হয়। বিশ্ববিদ্যালয়ের উপাচার্য নিজে উপস্থিত থেকে ত্রাণ বিতরনের সকল কাজ করেন। তিনি বলেন বিগত তিন দিন থেকে হাবিপ্রবি পরিবার তাদের সবটুকু দিয়ে বন্যার্তদের সহযোগিতার জন্য কাজ করে যাচ্ছে । সামনেও এই ধারা অব্যহত থাকবে ইনশাআল্লাহ্‌।