টরেন্টোর ই এ একাডেমির বর্ণাঢ্য ট্যালেন্ট শো

0
27

অনলাইন ডেস্ক: বাংলাদেশিদের ব্যবস্থাপনায় পরিচালিত টরেন্টোর ই এ একাডেমির শিক্ষার্থীদের বর্ণাঢ্য ট্যালেন্ট শো প্রতিযোগিতা অনুষ্ঠিত হয়েছে। গত ১৭ মার্চ একাডেমিতে এ প্রতিযোগিতা অনুষ্ঠিত হয়। বিপুল সংখ্যক অভিভাবক  ও শিক্ষার্থীদের উপস্থিতিতে ট্যালেন্ট শোটি সবার প্রশংসা কাড়ে। এতে অংশগ্রহনকারী শিক্ষার্থীরা তাদের প্রতিভা দেখিয়ে সবাইকে মুগ্ধ করে।বর্ণাঢ্য ট্যালেন্ট শো

বছর খানেক আগে বাংলাদেশী  চিকিৎসক ড. জ্যাকব মাহমুদ ও তাঁর স্ত্রী শুভ্রা রহমান এই একাডেমি গড়ে তুলেন।  স্কারবোরোর ব্রিমলী এন্ড সেন্টক্লেয়ারে (৩৭৫০) তাঁদের এই প্রতিষ্ঠান ইতোমধ্যে নজর কেড়েছে অভিভাবকদের। শুধু বাঙালি নয়, অন্য কমিউনিটির শিক্ষার্থীও আছে এখন এই প্রতিষ্ঠানে। ভাল মানের কারণে শিক্ষার্থী ক্রমাগত বাড়ছে বলে জানালেন এক অভিভাবক। গ্রেড ওয়ান থেকে টুয়েলভ পর্যন্ত শিক্ষার্থীরা পড়ছে এই  প্রতিষ্ঠানে।

আব্রার মাহমুদের পরিচালনায় এবং একাডেমির সমন্বয়ক শুভ্রা রাহমানের তত্ত্বাবধায়নে আয়োজিত এই ট্যালেন্ট শো প্রতিযোগিতায় বিচারকদের বিচারে প্রথম হয়েছে তানিশা ও তার দল (আফসা,যাআসারাত, নুরীন, নারজীস,), দ্বিতীয় হয়েছে শ্রেয়সী  ও পারিজাত। অনুষ্ঠানে উপস্থিত অভিভাবক এবং কমিউনিটির বিশিষ্ট ব্যাক্তিগণ বিজয়ীদের হাতে পুরষ্কার তুলে দেন।

সবশেষে একাডেমির পরিচালক ডাঃ জ্যাকব মাহমুদের ধন্যবাদ জ্ঞাপনের মাধ্যমে অনুষ্ঠানের সমাপ্তি ঘোষণা করা হয়  এবং রাতের খাবারের ব্যবস্থা করা হয়।

একাডেমির পরিচালক ডা. জ্যাকব মাহমুদ বলেন, ‘আমাদের সন্তানরা আগামী দিনে এদেশের নেতৃত্ব দিবে। এখন থেকে আমাদের শিশুদের গড়ে তুলতে হবে। এ লক্ষ্য থেকেই এ উদ্যোগ। শুধু পড়াশোনার মধ্যে থাকলে শিশু কিশোরদের পরিপূর্ণ বিকাশ হয়ে ওঠে না। ”

শুভ্রা রহমান জানান, প্রথম বছরে  হাইস্কুলে ভর্তি পরিক্ষায়  তাদের প্রতিষ্ঠানের ১৪ জন ছেলে মেয়ে অংশ নিয়ে ১৩ জনই সফল হয়েছে। নতুন একটি প্রতিষ্ঠান হিসাবে এই অর্জন তাদের আত্মবিশ্বাসকে বাড়িয়ে দিয়েছে।