কিউইদের বিপক্ষে ভালোই জবাব পাচ্ছে বাংলাদেশ

0
15

 

 

দ্বিতীয় দিনের ৫৪২ রানের সঙ্গে আরো ৫৩ রান যোগ করে নিজেদের প্রথম ইনিংস ঘোষণা করেছে বাংলাদেশ।

সাকিবের ২১৭, মুশফিকের ১৫৯ রানের পর আজ হাফ সেঞ্চুরি করেন সাব্বির রহমান। জবাবে ব্যাটিং করতে নেমে ভালো জবাব দিচ্ছে নিউজিল্যান্ডও। চা বিরতিতে এই প্রতিবেদন লেখা পর্যন্ত দুই উইকেট হারিয়ে ১৮৬ রান করেছে ব্লাক ক্যাপসরা।
বাংলাদেশের হয়ে প্রথম ওভারটা করেন অফ স্পিনার মেহেদী হাসান মিরাজ। নিজের দ্বিতীয় ওভারেই উইকেট পেতে পারতেন তিনি। তবে জিত রাভালের ক্যাচটা স্লিপের ফিল্ডার পর্যন্ত পৌঁছায়নি। নিজের প্রথম ওভারে উইকেট পেতে পারতেন তাসকিনও। তবে স্লিপে রাভালের ক্যাচ ফেলে দেন সাব্বির রহমান। উদ্বোধনী জুটিতে ৫৪ রান হওয়ার পর রাভালকে ফিরিয়ে দেন কামরুল ইসলাম রাব্বি। রাভালের ক্যাচ নিয়ে টাইগারদের স্বস্তি এনে দেন ইমরুল কায়েস। এরপর অধিনায়ক কেন উইলিয়ামসনকে নিয়ে দারুণভাবে এগুতে থাকেন টম ল্যাথাম।
এই জুটিতে আসে আরো ৭৭ রান। তিন নম্বরে নেমে উইলিয়ামসন স্বপ্ন দেখাচ্ছিলেন কিউইদের। তবে ব্যক্তিগত ৫৩ রানের মাথায় উইলিয়ামসনকে নিজের শিকার বানালেন তাসকিন। তাঁর একটি দুর্দান্ত বলে স্লিপে ইমরুলের কায়েসের হাতে ধরা পড়েন উইলিয়ামসন। নিউজিল্যান্ডের রান তখন দুই উইকেট হারিয়ে ১৩১। চতুর্থ উইকেটে অবশ্য আবারও জুটি গড়ার চেষ্টা করছেন রস টেলর ও ল্যাথাম। টেলর মারকুটে ব্যাটিং করে এরই মধ্যে করেছেন ৩৬ রান। তাঁর সঙ্গে ৬৫ রানে অপরাজিত আছেন ল্যাথাম।
গতকাল শুক্রবার ওয়েলিংটনে ঘটনাবহুল একটি দিন পার করেছিল বাংলাদেশ। বেশ কিছু অর্জনের মধ্য দিয়ে সাকিব-মুশফিকরা নিজেদের ঝুলিটাকেও সমৃদ্ধ করেছেন। শনিবার ম্যাচের তৃতীয় দিনে বেশ সতর্কভাবেই শুরু করেছিলেন তাঁরা।
সকালে পেসার তাসকিন আহমেদকে সঙ্গে নিয়ে সাব্বির রহমান বেশ স্বাচ্ছন্দ্যেই খেলে যাচ্ছিলেন নিউজিল্যান্ড বোলারদের। কিন্তু ১৪৪তম ওভারে তাসকিন ফিরে যান ব্যক্তিগত ৩ রানের মাথায়।
তার পরও সাব্বির সাবলীলভাবে খেলে ক্যারিয়ারের প্রথম হাফ সেঞ্চুরি করেন। তিনি ৮৬ বলে ৫৪ রান করেন। তাঁকে যোগ্য সাপোর্ট দিয়ে পেসার কামরুল ইসলাম রাব্বি ৬ রান করেন ২১ বল খরচায়।
সাব্বিরের হাফ সেঞ্চুরির পর বাংলাদেশ ইনিংস ঘোষণা করে ৫৯৫ রানে। ১৫২ ওভার খেলে আট উইকেট হারিয়ে এই রান করে তারা।
এর আগে ম্যাচের দ্বিতীয় দিনে সাকিব আল হাসানের ক্যারিয়ারের প্রথম ডাবল সেঞ্চুরি এবং মুশফিকের সেঞ্চুরিতে বড় সংগ্রহ দাঁড় করায় বাংলাদেশ। সাকিব করেছিলেন ২১৭ এবং মুশফিক ১৫৯ রান। সেই সুবাদে সাত উইকেট ৫৪২ রান করে দিন পার করছিল বাংলাদেশ। তৃতীয় দিনে ৫৩ রান যোগ করে মুশফিক বাহিনী।
টেস্টে এক ইনিংসে বাংলাদেশের সর্বোচ্চ সংগ্রহ ছিল ৬৩৮ রান। ২০১৩ সালে গলে শ্রীলঙ্কার বিপক্ষে রান করেছিল তারা। এবার সেই রানকে ছাড়িয়ে যাওয়ার সুযোগ থাকলেও বাংলাদেশ ইনিংস ঘোষণা করে ফেলায় সেই সুযোগ হাতছাড়া হয়ে যায়।