পছন্দের মেয়ের মন জয় করতে কুমিরের মুখে!

0
20

তরুণ বয়সে পছন্দের মেয়েটির মন জয় করতে অনেকেই ‘অসাধ্য’ কিছু করার সিদ্ধান্ত নিয়ে নেন। অবশ্য অস্ট্রেলিয়ার ১৮ বছর বয়সী তরুণ লি ডি পাউ যা করেছেন, তা ‘নির্বোধের’ মতো ছিল বলে তিনি নিজেই স্বীকার করেছেন। তাঁর স্বপ্ন ছিল ব্রিটিশ এক তরুণীর মন জয় করা। আর তা করতে গিয়ে রীতিমতো কুমিরে ভর্তি জনস্টোন নদীতে ঝাঁপিয়ে পড়েছিলেন তিনি। গুরুতর জখমও হন। এখন তিনি হাসপাতালের বিছানায় কাতরাচ্ছেন।grilsঘটনাটা গত রোববারের। অস্ট্রেলিয়ার কুইন্সল্যান্ডের একটি শহরে বেড়াতে গিয়েছিলেন ব্রিটিশ পর্যটক সোফি প্যাটারসন। সকালে লি ডি পাউয়ের সঙ্গে জনস্টোনের তীরে দেখা। এ সময়ই মনের কথা পাড়েন পাউ। সোফির মন জয়ে প্রয়োজনে জনস্টন নদীতেও সাঁতার কাটতে পারবেন বলে জানান। ঠাট্টার ছলে সোফি এগিয়ে যেতে বলেন। যেই কথা সেই কাজ। নদীতে নামেন পাউ। এরপর তিনি তিন মিটার লম্বা একটি কুমিরের মুখে পড়েন। কামড়ে ধরে তাঁকে। এই প্রজাতির কুমির অস্ট্রেলিয়ায় হিংস্র প্রাণী প্রজাতিগুলোর একটি। অবশ্য দ্রুত উদ্ধার করায় বাঁচতে পেরেছেন পাউ। তবে বাঁ হাতে গুরুতর জখম হয়েছেন।
অবশ্য যাঁর জন্য এত ঝুঁকি নেওয়া, সেই সোফির মন কিন্তু সামান্য পরিমাণও গলাতে পারেননি পাউ। সোফি বলেছেন, তাঁদের মধ্যে আসলে মন দেওয়া-নেওয়ার সেই রসায়নটা নেই।
পাউ বলেন, ‘আমি জানতাম না, নদীর ওই জায়গাটায় কুমির ছিল। আমি ওই কাজটা শুধু সোফির জন্য করেছিলাম।’
হাসপাতালে চিকিৎসাধীন অস্ট্রেলিয়ার নোভা নাইনটি সিক্স পয়েন্ট নাইন রেডিওকে পাউ বলেন, ‘নিজেকে অকুতোভয় প্রমাণ করতে আমি নদীতে ঝাঁপিয়ে পড়লাম। তারপর আমি সাঁতরে ফিরে আসছিলাম। উঠতে যাব, এমন সময় কুমিরটা আমার বাঁ হাত কামড়ে ধরে। ওটা আমাকে আবার টেনে নদীতে নামানোর চেষ্টা করছিল। আমি কুমিরের নাকে ঘুষি মারলাম। কামড় একটু হালকা হলো। এরপর ওটার চোখে আঘাত করলাম। এবার আমাকে ছেড়ে দিল ওটা।’
তবে একই রেডিও অনুষ্ঠানে পাউয়ের জন্য দুঃসংবাদ অপেক্ষা করছিল। টেলিফোনে সোফি ওই অনুষ্ঠানে যুক্ত ছিলেন। তিনি বলেন, ‘সে আমার চেয়ে ছোট।’ এরপর সোফিকে হাসপাতালে গিয়ে পাউয়ের সঙ্গে একবার দেখা করে আসার পরামর্শ দেন রেডিওর উপস্থাপক। কিন্তু তিনি এতে রাজি হননি।